অবৈধ পোস্ট ফেসবুক থেকে সরাতে নতুন আইন

প্রকাশিত: ৫:২১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০১৯ | আপডেট: ৫:২১:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০১৯

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের জায়ান্ট প্রতিষ্ঠাতা ফেসবুকের পোস্ট ডিলিট (মুছে ফেলা) করা নিয়ে নতুন আইন জারি করেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের সর্বোচ্চ আদালত।

ফেসবুকের প্রকাশ করা অবৈধ পোস্ট সরিয়ে ফেলার জন্য এ আইনের অধিনে ফেসবুক কিংবা এ ধরনের অন্যান্য অ্যাপ ও ওয়েবসাইটকে নির্দেশ দেওয়া যাবে।

বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) জারি করা আইনের শুনানিতে বলা হয়, কোনো অবৈধ পোস্টে মানুষ রিপোর্ট করলেই কেবল ব্যবস্থা নেয়া হবে এমনটি সঠিক নয়। বরং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোর উচিত নিজ উদ্যোগে অবৈধ পোস্ট খুঁজে তা মুছে ফেলা।

তবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের এ আইনের সমালোচনা করে প্রতিবাদ করেছে ফেসবুক। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এই নির্দেশ বাকস্বাধীনতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে।

এদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন যে আইন জারি করেছে ফেসবুক তার বিরুদ্ধে অধিকতর শুনানির আবেদন করতে পারবে না।

যে বিষয়ে মামলা : অস্ট্রেলীয় রাজনীতিবিদ ইভা গ্লয়িশনিগ-পিয়েশ্চেক সম্পর্কে ফেসবুকে এক অবমাননাকর পোস্ট নিয়ে এই মামলার সূচনা। অস্ট্রেলিয়ার আদালত থেকে বলা হয়েছে, ওই পোস্ট তাঁর সুনাম ক্ষুণ্ন করেছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের আইন অনুযায়ী ব্যবহারকারীর অবৈধ পোস্ট যতক্ষণ না পর্যন্ত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের গোচরে আসবে, ততক্ষণ পর্যন্ত তাদের দায়ী করা যাবে না। আর গোচরে এলে সঙ্গে সঙ্গে তা সরিয়ে ফেলতে হবে।

শুনানির গুরুত্বপূর্ণ তিনটি দিক হল— ইউরোপীয় ইউনিয়নের কোনও দেশ যদি এমন কোনও পোস্ট খুঁজে পায়, যা ওই দেশের আদালতের নিয়ম অনুযায়ী অবৈধ, তবে ওই ওয়েবসাইট বা অ্যাপকে তা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দিতে পারবে।

কোনও অবৈধ পোস্টের একই বার্তার অন্যান্য পোস্ট সরিয়ে ফেলারও নির্দেশ দেওয়া যাবে।

যদি সংশ্লিষ্ট দেশের সঙ্গে কোনও দ্বিপক্ষীয় চুক্তি থেকে থাকে তবে গোটা বিশ্ব থেকেই সে অবৈধ পোস্ট সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়া যাবে বলেও শুনানিতে উল্লেখ করা হয়।