অভিষেকে আশা জাগিয়েও ফিরলেন নাঈম

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:২২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩, ২০১৯ | আপডেট: ১০:২২:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩, ২০১৯

ক্যারিয়ারের প্রথম ম্যাচ। দারুণ খেলছিলেন মোহাম্মদ নাঈম। অভিষেকে আশা জাগিয়েও ফিরে গেলেন নাঈম। যুযুবেন্দ্র চাহাল উড়িয়ে মারতে গিয়ে শেখন ধাওয়ানের হাতে ক্যাচ দেন। আউট হওয়ার আগে ২৮ বলে ২৬ রান করেন তিনি।

নাঈম আউট হওয়ার বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৮ ওভারে দুই হারিয়ে ৫৪ রান।

১৪৯ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই লিটস দাসের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ডানহাতি পেসার দীপক চাহারের অফ স্টাম্পের বাইরের বল জায়গায় দাঁড়িয়ে খেলেছিলেন লিটন। পয়েন্টের সহজ ক্যাচ নেন লোকেশ রাহুল। লিটন ৪ বলে একটি চারে করেন ৭ রান।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারেই ভারতীয় ক্রিকেট দলের ওপেনার রোহিত শর্মাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন শফিউল ইসলাম। রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি রোহিত।

দলীয় ১০ রানে ব্যক্তিগত ৯ রান করে ফিরে যান তিনি। রোহিতের পর লোকেশ রাহুলকে সাজঘরে ফেরান আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। ১৭ বলে ১৫ রান করে মাহমুদউল্লাহর হাতে ক্যাচ দেন তিনি।

বিপ্লবের হাওয়ায় ভাসানো বল তুলে মারতে গিয়ে লং অফে ক্যাচ দেন ১৩ বলে ২২ রান করা শ্রেয়াশ আইয়ার। সীমানার কাছে দারুণ ক্যাচ ধরেন অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাঈম শেখ। শ্রে

য়াশ আইয়ারের পরে রান আউটে কাটা পড়েন শেখর ধাওয়ান। ওপেনিং নেমে হাফ সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ধাওয়ান। কিন্তু মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বলে দুই রান নিতে গিয়ে আউট হন তিনি।

অভিষিক্ত দুবেকে বড় ধাক্কা দেন আফিফ। দুর্দান্ত এক ক্যাচে আফিফ ফেরান ভারতের এই ব্যাটসম্যানকে। শফিউলকে উড়াতে গিয়ে নাঈমের হাতে ক্যাচ দেন রিশাভ পান্ত। ২৬ বলে ২৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন পান্ত। ওয়াশিংটন সুন্দর ১৪ ও কুনাল পান্ডে ১৫ রানে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় ম্যাচটি শুরু হয়। এ ম্যাচের মধ্যদিয়ে মোহাম্মদ নাঈমের অভিষেক হয়েছে।