অসুস্থ ছেলেকে দেখতে হাসপাতালে গিয়ে দিতে হলো জরিমানা

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:১৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০২০ | আপডেট: ১০:১৩:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০২০

চার বছরের ছেলে হাসপাতালের বিছানায় কাতর, ফোন করে জানিয়েছে বাবাকে দেখতে ইচ্ছার কথা। বাবার মন মানেনি, নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই গাড়ি নিয়ে চলে গেছেন ছেলেকে দেখতে। কিন্তু নিয়ম ভাঙায় গুণতে হয়েছে জরিমানা।

জার্মানির ডিফেন্ডার জেরোম বোয়েটাংয়ের সঙ্গে ঘটেছে এমন ঘটনা। করোনা আতঙ্কের কারণে বিনা অনুমতিতে খেলোয়াড়দের শহরের বাইরে যাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ছেলের ডাকে আর মন মানেনি বোয়াটেংয়ের, চলে গেছেন হাসপাতালে।

বোয়েটাং নিজে বন্দী বায়ার্ন মিউনিখে, ছেলে তখন জার্মার বোয়াটেং লেইপজিগের হাসপাতালে। নির্বিঘ্নে হাসপাতালে গিয়ে ছেলেকে দেখে আসেন বোয়েটাং। কিন্তু ফেরার পথে পিচ্ছিল রাস্তায় করে বসেন এক্সিডেন্ট, তার গাড়ি উঠে যায় রোড ডিভাইডারে।

তবে পুলিশ জানিয়েছে, অতিরিক্ত গতিজনিত কোনো অপরাধ করেননি বোয়াটেং। যদিও তার মার্সিডিজ গাড়িতে আনুমানিক ২২ হাজার পাউন্ডের ক্ষতি হয়েছে।

বায়ার্ন অবশ্য এ কারণে তাকে জরিমানা করছে না। বরং অনুমতি না নিয়ে শহরের বাইরে যাওয়ার কারণেই মূলত জরিমানা নেয়া হচ্ছে তার কাছ থেকে। এই জরিমানার পুরো টাকাটাই আবার তুলে দেয়া হবে স্থানীয় মিউনিসিপাল হাসপাতালের হাতে।

এই জরিমানা কোন প্রশ্ন ছাড়াই মেনে নিয়েছেন বোয়েটাং। জানিয়েছেন ছেলের জন্য দুনিয়ার যেকোন শাস্তিই মেনে নিতে পারবেন তিনি। বোয়াটেং বলেন, ‘আমি দুনিয়ার যেকোন শাস্তি মেনে নিচ্ছি এবং আমি জানি যে অনুমতি না নিয়ে বাইরে যাওয়াটা আমার ভুল হয়েছে।

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমি শুধু আমার ছেলের কথা ভাবছিলাম। তার শরীর ভালো ছিল না। যখন ছেলে তার বাবাকে ডাকে, তখন কিছুই আটকে রাখতে পারে না যাওয়া থেকে। ওর জন্য আমি যেকোনো শাস্তি মেনে নিতে প্রস্তুত।