আইসিজের আদেশ মানবতার জন্য মাইলফলক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২০ | আপডেট: ৮:০৪:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২০

রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার দায়ের করা মামলায় আন্তর্জাতিক আদালত (আইসিজে) বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) ৪টি অন্তর্বর্তী আদেশ দিয়েছে, যা মিয়ানমারকে মানতে হবে। আইসিজের এই আদেশকে মানবতার জন্য মাইলফলক এবং বিজয় হিসেবে উল্লেখ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) ইকুয়েডর থেকে বলেন, এই আদেশ মানবতার জন্য একটি বিজয়, বিশ্বজুড়ে মানবাধিকার এর জন্য একটি মাইলফলক।

তিনি আরও বলেন, এই আদেশ গাম্বিয়া, ওআইসি, রোহিঙ্গা এবং অবশ্যই বাংলাদেশের জন্য বিজয়। সেই সাথে বিশ্ব মানবতা ও ‘মানবতার জননী’ শেখ হাসিনার বিজয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আইসিজের বিচারকদের সর্বসম্মত এই রায়ে চারটি অন্তর্বর্তী পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মিয়ানমারকে। একইসঙ্গে রোহিঙ্গাদের নিয়ে কী ব্যবস্থা নেওয়া হলো, তা জানাতে মিয়ানমারকে আগামী চার মাসের মধ্যে একটি প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। আর প্রতি ছয়মাস পর পর মিয়ানমারের নেওয়া পদক্ষেপগুলো জানাতে প্রতিবেদন জমা দিতে হবে।

এছাড়া আদালত ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি ব্যবহার করেছেন। মিয়ানমারের দাবিও প্রত্যাখ্যান করেছেন। মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যা ও নৃশংসতা বন্ধ করতেও বলেছেন আদালত। এ রকম রায়ে আশা করি বিশ্বে জাতিগত নিপীড়ন ও গণহত্যার পুনরাবৃত্তি বন্ধ হয়ে যাবে।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে গাম্বিয়ার দায়ের করা মামলায় বৃহস্পতিবার মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রায় দেন আইসিজে।

এদিকে, আদালতের আদেশের পর দ্য হেগের পিস প্যালেসে উপস্থিত গাম্বিয়ার আইনমন্ত্রী আবুবকর তামাদো বলেন, আজকের দিনটি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জন্য চমৎকার একটি দিন।

এছাড়াও, কানাডার প্রধানমন্ত্রীর মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূত বব রি বলেন, আইসিজের আদেশের পরপরই গাম্বিয়ার আইনমন্ত্রীকে টেলিফোন করে তিনি অভিনন্দন জানিয়েছেন।