আগামী একবছর রেলে যুক্ত হচ্ছে ‘ওয়ান স্টপ ডিজিটাল সেবা’

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৫২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৫২:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯
সংগৃহীত

আগামী একবছরের মধ্যে রেলওয়ের জন্য তৈরি হবে ‘ওয়ান স্টপ ডিজিটাল সেবা’ অ্যাপ। এই একটি অ্যাপের মাধ্যমেই ট্রেনের টিকিট বুকিং ও মূল্য পরিশোধ করে টিকিট সংগ্রহ, ট্রেনের অবস্থান জানা থেকে শুরু করে রেলের সব ধরনের সেবা পাওয়া যাবে। একবছরের মধ্যে অ্যাপটি তৈরির পর তা উদ্বোধন করা হবে ২০২০ সালের এপ্রিলে।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) সকালে রেল ভবনে রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক যৌথভাবে এসব তথ্য জানিয়েছেন। সমন্বিত এই ডিজিটাল সেবা নিয়ে এদিন সকাল ১০টায় বৈঠকে বসেন দুই মন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টরা।

বৈঠক থেকে জানানো হয়, রেলের বর্তমান সেবাকে আরও জনবান্ধব ও সহজ করার লক্ষ্যে আইসিটি বিভাগ ও রেলপথ মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগে ওয়ান স্টপ ডিজিটাল রেলওয়ে যাত্রী সেবার সিস্টেম ও মোবাইল অ্যাপ তৈরি এবং বাস্তবায়ন করবে।

অ্যাপটি যাত্রা শুরু করলে এর মাধ্যমে একজন নাগরিক মোবাইল ফোন ব্যবহার করেই ট্রেনের টিকেট সিট বুকিং দেওয়ার পাশাপাশি টিকেটের মূল্যও পরিশোধ করতে পারবেন। পাশাপাশি স্টেশন ট্রেনের অবস্থান গন্তব্যের দূরত্ব জানা ও লোকাল ট্রান্সপোর্ট সেবার সঙ্গেও একজন নাগরিক সহজেই যুক্ত হতে পারবেন।

বৈঠকের পর জানানো হয়, ট্রেনে যাত্রাকালীন বিভিন্ন ধরনের অভ্যন্তরীণ সেবা, যেমন— ট্রেনের ভেতর খাবারের অর্ডার বা অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিতে রেল পুলিশের সহযোগিতার জন্য ওই একই অ্যাপে অভিযোগ দায়ের করা যাবে।

এই ইন্টিগ্রেটেড সিস্টেমের মোবাইল অ্যাপের পাশাপাশি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন কল সেন্টার ও এসএমএসের মাধ্যমে সব ধরনের সেবা পাওয়া যাবে। প্রস্তাবিত এই পদ্ধতি যেন প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরাও সহজে ব্যবহার করতে পারবেন, সেই প্রযুক্তিগত সুবিধাও নিশ্চিত করা হবে বলে জানান জুনাইদ আহমেদ পলক।

ইউএসএইড ও ইউএনডিপি’র সহায়তায় পরিচালিত অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) ও আইসিটি বিভাগ এই সমন্বিত ডিজিটাল সেবা বাস্তবায়নে সব ধরনের কারিগরি সহযোগিতা দেবে।

সভায় রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোফাজ্জল হোসেন, রেলওয়ে মহাপরিচালক কাজী রফিকুলআলম, এটুআই প্রকল্প পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমানসহ দুই মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।