আগামী ডিসেম্বর মাসে দৃশ্যমান হবে রামপাল তাপ বিদুৎ কেন্দ্র : কেসিসি মেয়র খালেক

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:৪৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮ | আপডেট: ২:৪৫:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮

মোঃ এনামুল হক,মোংলা বন্দর: খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, রামপালের তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অনেকে বলছে পরিবেশের কথা, পরিবেশ ঠিক থাকবে না। কিন্তু বিদেশের জনবসতি এলাকায়ও কয়লা ভিত্তিক অনেক প্রকল্প আছে, সেখানে পরিবেশ নষ্ট হয় না, পরিবেশ শুধু বাংলাদেশে।

রামপালের তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকেও ১৪ কিলোমিটার দূরে সুন্দরবন। সুন্দরবন নষ্ট হবে বলে জিকির তুলে সারা পৃথিবীতে সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলা হচ্ছে। সুন্দরবন আমাদের ঐতিহ্য। কিন্তু মানুষরুপী দস্যুরা গাছ কেটে বনকে উজাড় করছে। এ কারণেই এখন আর আগের মত বাঘ ও হরিণ পাওয়া যাচ্ছে না। বন ও পরিবেশের এ ধরণের বিপর্যয়ের জন্য দায়ী মানুষ নামের দুস্যদের কার্যকলাপ।

পরিবেশবিদরা তো এসব নিয়ে কথা বলেন না। সুন্দরবনে বিষ দিয়ে মাছ শিকার করা হচ্ছে এ নিয়েও পরিবেশবাদীরা বিরোধীতা করেন না। তারা (পরিবেশবিদ) পরিকল্পিতভাবে রামপালের বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিরোধীতা করে আসছেন।

শনিবার দুপুরে মোংলা সরকারি কলেজে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ সব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে নির্মাণাধীন এই তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে প্রায় ৫ থেকে ৭ হাজার লোক কাজ করছে। আগামী ডিসেম্বর মাসে এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র দৃশ্যমান হবে। তখনই তারা (পরিবেশবিদ) বুঝতে পারবে কিভাবে এই কাজটা হচ্ছে। এ সময় তিনি আরো বলেন, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ও পররাষ্ট্র মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান মোংলা বন্দরকে ধ্বংস করেছে। ওই সময় মোংলা-রামপাল ছিল সন্ত্রাসের জনপদ। আ’লীগ ক্ষমতায় এসে সেই জনপদকে শান্তির জনপদে ফিরিয়ে এনেছে।

আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় তাকে সংবর্ধনা দেয়ার জন্য শনিবার মোংলা সরকারি কলেজ এক সংবর্ধনার আয়োজন করে। মোংলা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম সরোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে স্থানীয় সাংসদ হাবিবুন নাহার, শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: রবিউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আ: রহমান, সেন্ট পলস উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক ফ্রান্সিস সুদাল হালদার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ইস্রাফিল হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ও পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে খুলনা সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক উপজেলা পরিষদ চত্বরে নব নির্মিত অফিসার্স ক্লাব ভবনের উদ্বোধন করেন।