আচ্ছা বাংলাদেশটা যেন কোথায়, প্রশ্ন ট্রাম্পের

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৫৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৫৭:অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০১৯

মিয়ানমারে নির্যাতিত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের সম্পর্কে কিছুই জানেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প!

এমনকি গত বুধবার হোয়াইট হাউসের ওভাল অফিসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, আচ্ছা বাংলাদেশটা যেন কোথায়?’

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ধর্মীয় নির্যাতনের শিকার হওয়ায় কয়েকজন ব্যক্তি বুধবার ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সেখানে চীন, তুরস্ক, উত্তর কোরিয়া, মিয়ানমারসহ ১৭টি দেশের নির্যাতিত ব্যক্তিরা ছিলেন।

ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়া ওই দলে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া একজন রোহিঙ্গাও ছিলেন। তিনি ট্রাম্পের কাছে জানতে চেয়েছিলেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সহায়তায় আপনার পরিকল্পনা কী?

জবাবে প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘সেটা আসলে ঠিক কোথায়?’ এ সময় ট্রাম্পের পাশে দাঁড়ানো অপর একজন বলেন, ‘বার্মার পাশে’।

ট্রাম্পের ওই মিটিংয়ের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিওতেও ট্রাম্পের এমন উত্তর শোনা যাচ্ছে।

এছাড়াও বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়াও মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

তিনি ট্রাম্পকে বলেন, আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। দেশটিতে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান নিখোঁজ রয়েছেন। অনুগ্রহ করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।

প্রিয়া বলেন, এখনো সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছেন। আমরা বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছেন, ভূমি দখল করে নিয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনও বিচার পাইনি। তার এমন বক্তব্য নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াসহ সারাদেশে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা।

প্রিয়া সাহা ঢাকা থেকে সদ্য প্রকাশিত ‘দলিত কণ্ঠ’ নামক একটি পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক।