আজ পবিত্র হজ, আরাফাত ময়দানে হাজিদের উপস্থিতি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৩০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৮ | আপডেট: ৫:৩০:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৮

সারাবিশ্ব থেকে সৌদি আরবে ২০ লাখের বেশি মুসলমানের মিনায় অবস্থান নেয়ার মধ্য দিয়ে রোববার শুরু হয়েছে হজ পালনের আনুষ্ঠানিকতা। আজ সোমবার আরাফাত ময়দানে হবে হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা।

লাব্বাইক, আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লা শারিকা লাকা লাব্বাইক, ইন্নাল হামদা ওয়াননি’মাতা লাকা ওয়ালমুল্ক।’ অর্থাৎ—‘আমি হাজির, হে আল্লাহ আমি হাজির, তোমার কোনো শরিক নেই, সব প্রশংসা ও নিয়ামত শুধু তোমারই, সব সাম্রাজ্যও তোমার।’ এই ধ্বনিতে আজ মুখরিত হবে আরাফাতের ময়দান।

তালবিয়া পাঠ করে মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে নিজের উপস্থিতি জানান দিয়ে পাপমুক্তির আকুল বাসনায় লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমান (হাজি) আজ মিনা থেকে আরাফাতের ময়দানে সমবেত হবেন।

সোমবার আরাফাতের ময়দানে হজযাত্রীরা থাকবেন সূর্যাস্ত পর্যন্ত। সৌদি সময় দুপুরে আরাফাতের ময়দানের মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবা পাঠ করা হবে।

আজ খুতবা পাঠ শেষে জোহর ও আসরের ওয়াক্তের মাঝামাঝি সময়ে হাজীরা জামায়াতের সাথে কছর নামাজ আদায় করবেন। সূর্যাস্ত পর্যন্ত তারা আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করে আল্লাহ তা’আলার জিকির আসকার ইবাদতে মশগুল থাকবেন।

হজ পালনকারীরা তাসবিহ-তাহলিল-তাকবির ও ইসতেগফারের মাধ্যমে দিনটি অতিবাহিত করবেন। অশ্রুসিক্ত নয়নে ক্ষমা প্রার্থনা করবেন। এ ময়দানেই আল্লাহ তাআলা হজরত আদম ও হাওয়া আলাইসি সালামকে ক্ষমা করে মিলিত করেছিলেন। সূর্যাস্তের পর মুজদালিফার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন হজপালনকারীরা। সেখানে গিয়ে তারা মাগরিব ও ইশা এক সঙ্গে আদায় করবেন।

৯ জিলহজ দিবাগত রাতে মুজদালিফায় খোলা আকাশের নিচে রাত-যাপন করা সুন্নত। আর ১০ জিলহজ ফজরের নামাজের পর সূর্য ওঠার আগে সামান্য সময় মুজদালিফায় অবস্থান করা ওয়াজিব।

১০ জিলহজ সূর্য ওঠার আগেই মিনার উদ্দেশ্যে মুজদালিফা ত্যাগ করতে হবে। মিনায় গিয়ে বড় জামরায় ৭টি কংকর নিক্ষেপ করতে হবে।

১০ জিলহজ কংকর নিক্ষেপের পর কুরবানি আদায় করতে হবে। কুরবানির পরের কাজই হলো মাথা ন্যাড়া করা।

উল্লেখ্য, পবিত্র হজ উপলক্ষে মক্কা, মদিনা, মিনা, আরাফাত ময়দান, মুজদালিফা ও এর আশ-পাশের এলাকায় ১০ হাজার নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে। সঙ্গে কাজ করছে ১৬ হাজার গাইড।