আমরাও জাতীয় ঐক্য চাই : কাদের

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৪২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৪২:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২, ২০১৮
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়নে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য দেন। ছবি : ফোকাস বাংলা।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দাবি করেছেন, তাঁরাও জাতীয় ঐক্য চান। তাঁরা একটা অর্থবহ, প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন চান। ফাঁকা মাঠে গোল দেওয়ার কোনো চিন্তা তাঁদের নেই।

আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত সমাবেশে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের শরিক সাম্যবাদী দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ওই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনে পরাজয় জেনে শেষ সময়ে বিএনপি আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। আর আন্দোলনের নামে ২০১৪ সালের মতো সহিংসতার চক্রান্ত চলছে বলে আবারও অভিযোগ করেন তিনি। কথা বলেন, পাতানো নির্বাচন করতে শীর্ষ নেতাদের নামে মামলা করা হচ্ছে বলে বিএনপি নেতাদের অভিযোগ প্রসঙ্গে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন যে মামলা হয়েছে, পুলিশ বলছে তারা ২০১৪-এর মতো সন্ত্রাসী তৎপরতা, পরিকল্পনা তৈরি করছে, গোপন বৈঠক করছে। এটা কি হয়রানিমূলক মামলা হবে? নিরাপদ হলে আদালতে যান।

কাদের বলেন, পর্দার অন্তরালে দেশে-বিদেশে যেসব চক্রান্ত চলছে, এ চক্রান্তের মূল টার্গেট হচ্ছেন শেখ হাসিনা। তাঁকে হত্যা করানোর পাঁয়তারা আছে।

নীতিহীনদের নিয়ে সরকারবিরোধীরা যে জাতীয় ঐক্য করার চেষ্টা করছে, তা সফল হবে না মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী ও স্বাধীনতার পক্ষের সবাইকে নিয়ে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। এ ব্যাপারে বাম দলগুলোকে নিজেদের বিভেদ ভুলে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরাও জাতীয় ঐক্য চাই। আসুন না, আমরা মিনিমাম পয়েন্টে ম্যাক্সিমাম ইউনিটি গড়ে তুলি। আমরা একটা অর্থবহ, প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন চাই। ফাঁকা মাঠে গোল দেওয়ার কোনো চিন্তা আমাদের নাই।’

বিএনপির উদ্দেশে কাদের বলেন, ‘এখন আপনি আসবেন না, ভাবসাব দেখছেন খারাপ। সর্বাত্মক আন্দোলনের ডাক দিন। ১০ বছর পারেননি। আর এক মাস আছে। এক মাসে আপনারা কী আন্দোলন করবেন, সবাই জানে।’ বিএনপির হাতে দেশ ও গণতন্ত্র নিরাপদ নয়। এ ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি।