‘আমাকে লাগাতার আপত্তিজনক ছবি পাঠাতেন’

টিবিটি টিবিটি

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৮ | আপডেট: ১০:১৭:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৮

স্বামীর মৃত্যুর পর তার যৌন হেনস্থা করেছেন এক সাংবাদিক। সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি এই বিস্ফোরক অভিযোগ জানিয়েছেন দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রির জনৈক অভিনেত্রী গায়ত্রী সাই। ফেসবুকের লাইভের মাধ্যমে এই অভিযোগ প্রকাশ্যে এনেছিলেন তিনি।

চেন্নাইয়ের ওই অভিনেত্রীর অভিযোগ, কয়েক বছর আগে স্বামীর মৃত্যুর পর ছেলেকে নিয়ে তিনি হংকং গিয়েছিলেন। সেখানে তার ছেলের পাসপোর্ট সংক্রান্ত কিছু সমস্যা দেখা দেয়। তা সমাধান করার নামে এগিয়ে আসেন প্রকাশ এম স্বামী নামের ওই সাংবাদিক। তার পর লাগাতার যৌন হেনস্থা চলেছে গত দু’বছর ধরে।

এনডিটিভি’র খবর অনুযায়ী, ওই অভিনেত্রী বলেন, ‘হোয়াটসঅ্যাপে আমাকে লাগাতার আপত্তিজনক ছবি পাঠাতেন উনি। আমার জনপ্রিয়তা নষ্ট করে দেবেন বলে ভয় দেখাতেন। আমার স্বামী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছিলেন। কিন্তু ওই সাংবাদিক মিথ্যে খবর রটিয়ে দেন। উনি বলেন, আমি নাকি আমার স্বামীকে মেরে ফেলেছি।’

যদিও অভিযুক্ত প্রকাশ এম স্বামী সংবাদমাধ্যমের কাছে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। টুইটারে প্রকাশ নিজেকে ‘মার্কিন করেসপন্ডেট’ হিসেবে নিজের পরিচয় দেন ইদানীং। এনডিটিভি’র কাছে তিনি বলেন, ‘আমি কখনও ওই মহিলাকে যৌন নির্যাতন করিনি। আর যদি তর্কের খাতিরে ধরেও নিই, এমন ঘটনা ঘটেছে, তা হলে এতদিন উনি কেন চুপ করে ছিলেন?’

ওই অভিনেত্রী আরো জানিয়েছেন, নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে নিজের ছবি পাঠিয়ে ওই সাংবাদিক নাকি নিজের প্রতিপত্তি, ক্ষমতা বোঝাতে চাইতেন। এমনকি বহু মহিলার সঙ্গে তিনি অসভ্য আচরণ করেছেন বলেও অভিযোগ করেছেন ওই অভিনেত্রী। তার অভিযোগ, ‘পুলিশ প্রথমে এফআইআর নিতে চায়নি। শুধুমাত্র একটা যৌন নির্যাতনের ঘটনা হিসেবে সেক্সুয়াল সার্ভিস রেজিস্টার করেছিল।’

এনডিটিভিকে চেন্নাই পুলিশ জানিয়েছে, যেহেতু ওই মহিলাকে ফোনে বা হোয়াটসঅ্যাপে বিরক্ত করা হত, তাই এটা সাইবার ক্রাইমের অন্তর্গত। তবে সাইবার ক্রাইম বিভাগ বিষয়টি তদন্ত করছে কিনা, তা জানা যায়নি।