আহারে, বুয়েটে এখন মেধাবি ছাত্রছাত্রীই নয়, খুনিরাও পড়াশোনা করে

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:০২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৭, ২০১৯ | আপডেট: ১১:০২:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৭, ২০১৯
সংগৃহীত

বর্বরতার চরমে পৌঁছে গেছি আমরা। আমাদের সন্তানদের আমরা মানুষ হতে দিচ্ছি না। খুনি দানব তৈরি করছি। কি অপরাধ বুয়েটের আবরারের? দেশের সেরা মেধাবি ছাত্রদের একজন সে।

তার বাবা-মা তিল তিল স্বপ্ন দেখেছিলেন। ছেলেটি ভালো লেখাপড়া করে, ভালো রেজাল্ট করে বুয়েটে তুমুল প্রতিযোগিতার বাজারে ঠিকেছিল। বাবা মার বুকভরা স্বপ্নের সাথে তার নিজের স্বপ্ন ছিল। স্বপ্ন পূরণ হবার আগেই সব শেষ!

আবরারেরই সতীর্থরা নির্মমভাবে পিটিয়ে, নির্দয় উন্মত্ত খুনির চেহারায় তাকে হত্যা করেছে। ফেসবুক স্ট্যাটাস কেনো হবে হত্যার কারণ? ফেসবুক স্ট্যাটাসের জবাব, স্ট্যাটাসেই হবে। জীবন হরণ প্রতিবাদ হতে পারে না।

সে রাষ্ট্রদ্রোহী কোন অপরাধ করেনি। করলেও আইন আছে, কেউ আইন হাতে তুলে নিতে পারে না। এখন আবরারের খুনিরা গ্রেফতার হবে। আইন তাদের শাস্তি দেবে। খুনিদের পরিবার ও তাদের স্বপ্নও শেষ। জীবনের করুণ পরিণতি ঘটবে। মাঝখানে জীবনহানি, খুনি, বাবা মার ও দেশের স্বপ্নভঙ্গ!

যে ছেলেটি খুন হয়েছে সে হতে পারতো আপনার আমার ছেলে। যারা খুনি তারা হতে পারতো আমার আপনার সন্তান। তার মানে আমরা এমন এক সমাজ তৈরি করেছি, যেখানে আমাদের সন্তানরা খুন হচ্ছে, আমাদের সন্তানরাই খুনি হচ্ছে।

আহারে, বুয়েটে এখন মেধাবি ছাত্রছাত্রীই নয়, খুনিরাও পড়াশোনা করে, বাস করে। গোটা সমাজ রাজনীতি, প্রশাসনকে কি এ প্রাণহানি ঘুম ভাঙাতে পারবে? আজ আমি খুনিদের বিচার চাই, আজ আমরা সু-সন্তান তৈরির সমাজ পরিবেশ চাই। বিশ্ববিদ্যালয় ও হল প্রশাসনকেও জবাবদিহি করতে হবে আজ।

লেখক: পীর হাবিবুর রহমান

নির্বাহী সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রতিদিন।