ইজতেমা অনেকেই চায় না, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্তে অটল

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৫৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৯ | আপডেট: ৮:৫৯:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৯

‘কেউ কেউ চেয়েছিল যাতে এ বছর ইজতেমা না হয়। তবে এ ব্যাপারে আমাদের প্রধানমন্ত্রী ডিটারমাইন্ড। ইজতেমা হবেই।’ আসন্ন বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে রোববার সচিবালয়ে তাবলীগ জামাতের দুই পক্ষের সাথে দুই দফা মিটিং শেষে এ কথা জানান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

ইজতেমা পরিচালনা, ইমামতি ও দোয়া কে পড়াবেন এ বিষয়ে আলেমদের দুই পক্ষ ঐক্যমতে পৌঁছাতে পারেনি জানিয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, কিছু শর্ত তারা (তাবলীগ জামাতের দুই গ্রুপ) দিয়েছেন। এই শর্তগুলো নিয়ে আগামীতে আরেকটা মিটিংয়ে বসলে সিদ্ধান্ত হয়ে যাবে। এ বিষয়ে দুই পক্ষকে একটু সময় দিয়েছি।

বিশ্ব ইজতেমা ঐক্যবদ্ধভাবে আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কেউ কেউ চেয়েছিল যাতে ইজতেমা না হয়। তবে এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী ডিটারমাইন্ড। ইজতেমা হবেই।
Add Image

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তাবলীগ জামাতের দুই পক্ষের সাথে গত মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছিল এক ধাপে ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু আজকের মিটিংয়ে এক পক্ষ থেকে দুই ধাপে ইজতেমা করার বিষয়ে প্রস্তাব করা হয়। আমরা বলেছি ঐক্যবদ্ধভাবে এক ধাপেই ইজতেমা হবে। এই সিদ্ধান্ত দুই গ্রুপই মেনেছেন।

 

এর আগে ইজতেমা সফল করতে আইনশৃংখলা সংক্রান্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আবদুল্লাহ, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, সাদ ও অপরপক্ষের আলেমরা এবং আইনশৃংখলা বাহিনীর প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।