ইদলিবে আমরা রক্তগঙ্গা চাই না : এরদোয়ান

প্রকাশিত: ৪:০২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮ | আপডেট: ৪:০২:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮
ফাইল ছবি

সিরিয়ার ইদলিব শহর শুধু সিরিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ নয়; শহরটি তুরস্কের জাতীয় নিরাপত্তার জন্যও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ইরানের রাজধানী তেহরানে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সম্মেলন শেষে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

সামরিক দিক দিয়ে মুসলিম বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দেশ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, ‘আমরা ইদলিবে রক্তগঙ্গা চাই না। আমরা যদি সেখানে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করতে পারি তাহলে সেটা হবে এই সম্মেলনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।’

ইরানের রাজধানী তেহরানে শুক্রবার অনুষ্ঠিত সম্মেলনে অংশ নেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান ও ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি।

সম্মেলন শেষে তিন নেতা যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। এসময় এরদোগান বলেন, ইদলিবে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সেখানে বোমা বর্ষণ বন্ধ করতে হবে।

সিরিয়ায় যতদিন রাজনৈতিক, ভৌগোলিক ও সামাজিক ঐক্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত না হবে ততদিন তুরস্ক এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবে বলে মন্তব্য করেন এরদোগান।

এরদোগান বলেন, ইদলিবে তুরস্কের ১২টি পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে। এসব কেন্দ্র থেকে সিরিয়ায় শান্তি প্রতিষ্ঠায় তুরস্ক খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।