ইভিএম নিয়ে সরকারের ঘরেই আগুন জ্বলছে : মান্না

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:৪৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ৩:৪৬:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৮
ফাইল ছবি

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ইভিএম নিয়ে সরকারের নিজের ঘরে আগুন জ্বলছে। নির্বাচন কমিশনের একজন সদস্য সরাসরি বলেছেন এই পদ্ধতি দেয়া যাবে না। কিন্তু সরকার তা উপেক্ষা করে ৪ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করে ইভিএম ব্যবহারে জোর দিচ্ছে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, জাতীয় মহা ঐক্য ও খালেদা জিয়ার মুক্তি’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

অ্যাডভোকেট ড. রফিকুল ইসলাম মেহেদীর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমদ, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, জিনাফ সভাপতি লায়ন মিয়া মো. আনোয়ার প্রমুখ।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, সরকার ইভিএমে এত জোর দিচ্ছে কেন জানেন? কারণ তারা জানে ইভিএম হ্যাক করা যায়। সব মানুষকে ফাঁকি দিয়ে ১০০ আসন জয় নিশ্চিত করার কৌশল সরকার করে রেখেছে। শুধু সরকার নয়, সরকারের নির্বাচন কমিশনও জনগণের সঙ্গে ধোঁকাবাজি করছে।

তিনি বলেন, দশম সংসদ নির্বাচনে ১৫৩ আসন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। এবার নির্বাচনে যদি সব দল অংশ নেয় তাহলে তারা পাস করবে কীভাবে? তাই ইভিএমের মাধ্যমে ১০০ আসন নিশ্চিত করছে; বাকিটা অন্য কৌশলে।

মান্না বলেন, আবেগ দিয়ে কখনো যুদ্ধে জয়লাভ করা যায় না। খালেদা জিয়া ছাড়া এই নির্বাচন হবে না। নির্বাচনের আলোচনাও করা যাবে না। আমরা নির্বাচনে যাব না- এটা বলে লাভ নেই। সরকার নিজেও চায় বিএনপি নির্বাচনে না যাক। কারণ তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতার নির্বাচন চায়।

আইনজীবীদের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আপনারা খালেদা জিয়াকে বলেছেন যাই হোক না কেন আপনাকে এক মাসের বেশি রাখতে পারবে না। কিন্তু ছয় মাসের বেশি পার হয়ে গেছে আপনারা তাকে বের করতে পারেননি। আপনারা গ্যারেন্টি দিতে পারবেন তাকে নির্বাচনের আগে বের করে আনতে পারবেন? যদি না পারেন আপনারা নির্বাচনে যাবেন না। সরকার তো তাই চায়।