ইয়ংমেন্স ক্লাবের ভেতরে জুয়ার আসর জানতেন না গভর্নিং বডি চেয়ারম্যান মেনন

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৫১:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯
ছবিঃ সংগৃহিত

২০১৬ সালে যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে সভাপতি ও হাজী মো. সাব্বির হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাবের ৩১ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটি করা হয়।

এরপর কার্যনির্বাহী কমিটির এক সভায় তৎকালীন বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেননকে সর্বসম্মতিক্রমে ক্লাবের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান নির্বাচিত করা হয়।

ইয়ংমেন্স ক্লাবের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান স্থানীয় এমপি ও ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন দাবি করেছেন, ক্লাবের ভেতরে জুয়ার আসর বসা সম্পর্কে তিনি কিছুই জানতেন না। তিনি এটিকে ফুটবল ও ক্রিকেট খেলার ক্লাব হিসেবেই জানতেন।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ইয়ংমেন্স ক্লাবের ক্যাসিনোতে অভিযান চালিয়ে নারী-পুরুষসহ ১৪২ জনকে আটক করে র‌্যাব। তাদের ৬ মাস থেকে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ক্যাসিনোর আড়ালে ক্লাবটিতে মাদক ব্যবসা চলতো বলে জানা গেছে।অভিযানে ক্লাবটির ভেতর থেকে আনুমানিক ২০ লাখ টাকাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়।

এ বিষয়ে ক্লাবের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান রাশেদ খান মেনন বলেন, ক্লাবের ভেতরে জুয়ার আসর বসার বিষটি আমার জানা ছিলো না। আমি এটিকে ফুটবল ও ক্রিকেট খেলার ক্লাব হিসেবেই জানতাম। মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী সাব্বির এ ক্লাবটিরও সাধারণ সম্পাদক।

তিনি একদিন আমাকে সেখানে নিয়ে গিয়ে বলে আপনি ক্লাবের চেয়ারম্যান থাকবেন। আমি বলেছিলাম ‘ঠিক আছে’। ব্যাস ওইটুকুই। আমি জানতাম ওটা ফুটবল ক্লাব, তারা ক্রিকেটও খেলে। তাদের ফুটবল লিগ আছে। আর সেই ব্যাপারেই আমাকে নেওয়া হয়েছিল। আমি সেখানে একবারই গিয়েছি। এরপর সেখানে আমি যাইনি। আর জানিও না সেখানে কী হয়।

ক্লাবের ভেতরে জুয়ার আসর বসা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকার আগে থেকেই এটার বিষয়ে জানে। পুলিশ জানে। পুলিশ তো এটা ভালো করেই জানে। তারা এতদিনে কিছু করেনি কেন? এটির ভেতরে জুয়া খেলা বা মদের আসরের কোনও দায়দায়িত্ব আমার ওপর বর্তায় না। আমি এটাকে জানি ফুটবল ক্লাব হিসেবে। সেখানে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তল্লাশি করেছে। এটা একটি ভালো কাজ করেছে।