বাংলাদেশ টুডে ও এমজে ফ্যাশানের সৌজন্যে ঈদ উপহার বিতরণ

প্রকাশিত: ১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ১৪, ২০২১ | আপডেট: ১:৩৮:পূর্বাহ্ণ, মে ১৪, ২০২১

ঈদের আনন্দ যাতে মলিন না হয়, সে লক্ষ্যে দি বাংলাদেশ টুডে ও এমজে ফ্যাশানের সৌজন্যে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার কর্মহীন, দুঃস্থ ও হতদরিদ্রদের মাঝে ঈদ উপহার ও খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে।

১৩ মে (বৃহস্পতিবার) করোনাকালীন সরকারের নির্দেশিত সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই কর্মসূচি সম্পন্ন করা হয়।

দি বাংলাদেশ টুডের চেয়ারম্যান ও ঢাবি শিক্ষক জোবায়ের আলম দি বাংলাদেশ টুডের পক্ষ থেকে এই কর্মসূচীতে প্রতিনিধিত্ব করেন। তার সহধর্মীনী এমজে ফ্যাশানের স্বত্ত্বাধিকারী মারজান জেনিফাও এসময় তার সাথে থেকে ঈদের আগমুহূর্তে সবার মূখে হাসি ফোটানোর চেষ্টায় সামিল হন।

জানতে চাইলে জোবায়ের আলম বলেন, এলাকার মানুষের জন্য ভাল কিছু করার চেষ্টা আমার সবসময়ই আছে। সুযোগ পেলেই তাই তাদের পাশে দাঁড়িয়ে, তাদের মুখে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করি। আর এখন ঈদের সময়। ঈদের মত একটি আনন্দানুষ্ঠানে যেন কারও মুখে অন্ধকার না থাকে, সেজন্যই আজকের এই প্রচেষ্টা।

ঈদের আনন্দ সবার সাথে ভাগাভাগি করে নিতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত জানিয়ে এমজে ফ্যাশানের স্বত্ত্বাধিকারী মারজান জেনিফা বলেন, ঈদ মানেই খুশি। আর এই খুশির ঈদে সবার মূখে হাসি দেখতে চাই। তাই আশেপাশের মানুষেরাও যাতে খুশিমনে ঈদ করতে পারে, সেজন্যে ঢাকা থেকে সবার মাঝে ছুটে আসা।

এসময় প্রত্যেককে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সমাজের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান তারা।

এর আগে রাজধানীর এফডিসিতে চলচিত্রের কলাকুশলীদের ঈদ উপহার দিয়ে তাদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নেন মারজান জেনিফা।

দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন সময়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে আসছেন এই অভিনেত্রী। গত বছর লকডাউনের শুরুতে কর্মহীনদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিলেন তিনি।

তাছাড়া ২০১৮ সালে একজন সফল উদ্যোক্তা হিসেবেও নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তিনি। তার ‘মারজান জেনিফা ফ্যাশান’ রাজধানীর পুলিশ প্লাজার গণ্ডি পার হয়ে ইতোমধ্যে বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্সেও একটি নতুন শাখা খুলেছে।

অন্যদিকে দেশের মানুষকে সহায়তার জন্য দি বাংলাদেশ টুডের ব্যানারে ‘দুঃস্থ সহায়তা ফান্ড’ নামে একটি সেবাদানকারী তহবিল গড়ে তুলেছেন জোবায়ের আলম। শীত, বন্যা, মহামারী ও বিভিন্ন উৎসবে ঐ ফান্ডের মাধ্যমে অসহায় মানুষকে সহায়তা করে যাচ্ছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, বিভিন্ন সময় দেশের মানুষকে সহায়তার মহান ব্রত নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন জোবায়ের আলম ও মারজান জেনিফা দম্পতি। একইসাথে একাধিক দায়িত্ব সামলেও সমাজের মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন এই যুগল।