একটি ভোটও জোটেনি নেইমারের কপালে

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:৩৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮ | আপডেট: ১:৩৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮

ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। ২০১৩ সালে বার্সেলোনায় নাম লেখান তিনি। গত বছর হঠাৎ করেই বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দেন এই ব্রাজিলিয়ান তারকা। বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার হিসেবে নাম লেখালেন ফ্রান্সের ক্লাব পিএসজিতে।

কিন্তু এই লোভই তার কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফিফা বর্ষসেরা হওয়া তো দূরে থাক, এবার এই বর্ষসেরা হওয়ার ক্ষেত্রে নেইমারের কপালে একটি ভোটও জোটেনি। অর্থাৎ নেইমার গত মৌসুমে এমন কিছু করতে পারেননি যে, ভোটাররা তাকে ভোট দেবেন।

এর আগে নেইমারকে সবাই জানতো দারুণ সম্ভাবনাময়ী এক স্ট্রাইকার হিসেবে। যার পায়ে অসাধারণ কারুকাজ রয়েছে। তার ড্রিবলিংয়ে দিশেহারা হয়ে যায় প্রতিপক্ষের ডিফেন্স। এখনও হয়তো তা আছে। কিন্তু নেইমারকে এখন মানুষ চেনে অহেতুক এবং অতিরিক্ত ডাইভ দেয়ার জন্য। মানুষ চেনে, নেইমার মাঠে একজন অভিনেতা।

পিএসজিতে আসার পর প্রথম মৌসুমটা তার কেটেছে পুরোপুরি হতাশার মধ্যদিয়ে। ফেব্রুয়ারিতেই ইনজুরিতে পড়ে চলে যেতে হয়েছিল মৌসুমের বাকি সময়ের জন্য সাইডলাইনে।

এমনকি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ফিরতি পর্বের ম্যাচটি পর্যন্ত খেলতে পারেননি। বিশ্বকাপের ঠিক আগ মুহূর্তে ফিরেছিলেন জাতীয় দলের হয়ে খেলার জন্য।

ফিফা বর্ষসেরা বাছাই করা হয় ভোটাভুটিতে। ফিফার সদস্য প্রতিটি দেশের জাতীয় দলের অধিনায়ক এবং কোচরা ভোটাভুটিতে অংশ নেন। ভোট দেন ফিফা নির্ধারিত ক্রীড়া সাংবাদিক এবং সমর্থকরা। চার ধরনের ভোটাভুটিতে প্রতিজনই তিনটি করে বাছাই করার সুযোগ পেয়ে থাকেন।

মজার ব্যাপার হলো, রাশিয়া বিশ্বকাপ নেইমারের কলঙ্ক এতটা বাড়িয়ে দিয়েছে যে, তার জনপ্রিয়তা বলতে গেলে শূন্যের কোঠায় এসে দাঁড়িয়েছে। কোনো অধিনায়ক, কোনো কোচ, কোনো সাংবাদিক কিংবা কোনো সমর্থক পর্যন্ত নেইমারের নামে একটি ভোটও দেননি।