এক দ্বীপে একলা নারীর ১৮ বছর পার!

প্রকাশিত: ১২:০৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ১২:০৬:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৫, ২০১৮

ক্যালিফোর্নিয়ার নির্জন এক দ্বীপ সান নিকোলাস দ্বীপ। দ্বীপটিতে বাস করত নিকোলেনো উপজাতি সম্প্রদায়।

দ্বীপে তারা ১০ হাজার বছর ধরে বাস করলেও ক্রমে তাদের সংখ্যা কমতে থাকে। ১৮৩৫ সালে দ্বীপের অবশিষ্ট থাকা মাত্র ২০ জন অধিবাসীকে একটি ট্রলারে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

কিন্তু ট্রলারটি কিছুদূর যাওয়ার পর দেখা যায়, তাদের মধ্য থেকে দুজন নেই। হারিয়ে যাওয়া ওই দুজনের একজন মারিয়া। আর অন্যজন তার দুই বছরের পুত্রসন্তান।

ছেলে হারিয়ে যাওয়ার কারণে মারিয়া তাকে খুঁজতে বোট থেকে নেমে পড়েছিলেন। কিন্তু পরে আর ফিরতে পারেননি। অন্যদিকে তার ছেলে বন্যা কুকুরের আক্রমণে মারা যায়। মারিয়া একা হয়ে যায়।

১৮ বছর পরে ১৮৫৩ সালে মারিয়ার সন্ধান পাওয়া যায়। কিন্তু দীর্ঘ সময়ে সভ্যতার সঙ্গে তার সব সম্পর্কের ইতি ঘটেছে।

তবে মারিয়া আকার-ইঙ্গিতে বুঝিয়েছিলেন, তার ছেলে বন্যা কুকুরের শিকারে পরিণত হয়েছে। তিনি একাই দ্বিপটিতে বেঁচে আছে। তিমির হাড় দিয়ে তিনি বাড়ি তৈরি করেছিলেন। শিল মাছ, বুনো পাখি মেরে খাদ্যচাহিদা মেটাতেন তিনি।

পরে তাকে সভ্য দুনিয়ায় আনার সাত মাস পর মারা যান।