এবছর আর হলো না!

এবছর পিএসজিতেই থাকতে হচ্ছে নেইমারকে

প্রকাশিত: ১:০১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯ | আপডেট: ১:০১:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯

পুরনো ক্লাব বার্সেলোনা থেকে পরপর চারটি প্রস্তাব আসার পরও শেষ পর্যন্ত প্যারিস সেইন্ট জার্মেই’তেই থাকতে হচ্ছে ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমারকে। আন্তর্জাতিক ফুটবলের বিরতি শেষে নেইমার আবারও পিএসজি দলের সঙ্গে যোগ দেবেন বলে জানিয়েছেন স্কাই স্পোর্টস।

প্রতিদিন কোন না কোন নতুন নাটকের জন্ম নিচ্ছে নেইমারের দলবদল নিয়ে। এদিকে স্পেনের দলবদলের উইন্ডোও শেষ হয়ে যাচ্ছে কয়েক ঘণ্টা পর। অথচ ব্রাজিলিয়ান এই সেনসেশনকে কেনার বিষয়ে পিএসজির সঙ্গে কোন চুক্তিতে এখনও পৌঁছাতে পারেনি বার্সেলোনা। নেইমারের জন্য বার্সার সর্বশেষ প্রস্তাবটিও প্রত্যাখ্যান করেছে প্যারিসের ক্লাবটি।

বেশি নয়, মাত্র দুই মৌসুম আগে (২০১৭ সালের আগস্টে) বার্সেলোনা থেকে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরোয় পিএসজিতে গিয়েছিলেন নেইমার। যে ট্রান্সফারের মধ্যে দিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলারে পরিণত হয়েছিলেন ব্রাজিলের পোস্টারবয়। কিন্তু এক মৌসুম যেতেই প্যারিস থেকে মন উঠে যায় তার। বড় কোন ক্লাবে ফিরতে মন আনচান করতে থাকে।

রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে রিয়াল মাদ্রিদকে ঘিরে বেশ গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো তখন এক প্রকার নিশ্চিত করেই বলেছিল, সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যোগ দিচ্ছেন নেইমার। সেসময় অবশ্য পিএসজির প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফি ‘২ হাজার পার্সেন্ট’ নিশ্চয়তা দিয়ে বলেছিলেন, পিএসজিতেই থাকছে নেইমার। বিশ্বকাপ শেষে তার কথাই সত্যি হল। কিন্তু নেইমারকে নিয়ে গুঞ্জন থামল না।

এর মধ্যে চলতি বছরের মার্চে আবার ইনজুরিতে পড়েন নেইমার। সেই ইনজুরি থেকে সেরে উঠতেই দল বদলের মৌসুম শুরু হয়ে গেল। নেইমারও আকারে ইঙ্গিতে বার্সার ফেরার আগ্রহটা জানিয়ে দিতে লাগলেন। কিন্তু পিএসজি তাকে ছাড়তে রাজি নয় মোটেও। অবস্থা এমন হয়েছিল যে, পিএসজির মৌসুম প্রস্তুতির অনুশীলণেও যোগ দিলেন না নেইমার। অবশেষে অনিচ্ছুক এই তারকাকে বেচতে রাজি হল পিএসজি।

বার্সাও এগিয়ে আসে নেইমারকে কিনতে। কিন্তু পিএসজির উচ্চ দামের বিপরীতে যে প্রস্তাব তারা দেয় তা শুরুতেই নাকচ হয়ে যায়। এরপর আবার প্রস্তাব তৈরি করে কাতালনরা। এর মধ্যে ফরাসি একটি গণমাধ্যম জানায়, নেইমারকে নাকি ‘কেনার ভান’ করছে বার্সা, সেটা মেসিকে খুশি করার জন্য। কারণ মেসি চান তার সাবেক এই সতীর্থ বার্সেলোনায় ফিরুক।

এই তথ্য ফাঁস হওয়ার পর নড়েচড়ে বসে বার্সেলোনা। নেইমারকে কিনতে নতুন করে প্রস্তাব তৈরি করে। কিন্তু একে একে তাদের আরো দুইটি প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হয়। এরপর চতুর্থ ও চূড়ান্ত প্রস্তাব নিয়ে প্যারিসে হাজির হয় বার্সার প্রতিনিধিরা।

গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, চতুর্থ প্রস্তাবটিতে বার্সেলোনা নগদ ১৩০ মিলিয়ন ইউরো+রাকিতিচ ও হুয়ান-ক্লেয়ার টডিবোকে দিতে চেয়েছিল। সঙ্গে উসমানে ডেম্বেলেকে দিতে চেয়েছিল এক মৌসুমের জন্য ধারে। কিন্তু বার্সার এই পরিমার্জিত প্রস্তাবটিও পিএসজির মনঃপুত হয়নি। এমন লোভনীয় প্রস্তাব দিয়েও পিএসজির চাহিদা পূরণ করতে না পেরে বার্সেলোনা আপাতত নেইমারের আশা ছেড়ে দেওয়ার কথাই নাকি ভাবছে।

এদিকে বার্সা ছাড়া নেইমারের জন্য আর কোন ক্রেতাও নেই। নেই সময়ও। আসলে নেইমারের মতো খেলোয়াড় কিনতে চায় সবাই। রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাসের মতো দুই জায়ান্ট ক্লাবও হাত বাড়িয়েছিল তাকে কিনতে। কিন্তু পিএসজির চাহিদার কাছে হার মেনেছে তারাও।

এমন পরিস্থিতিতে হাল ছেড়ে দিয়েছেন নেইমারও। বুঝে গেছেন এই মৌসুমও প্যারিসেই কাটাতে হবে তাকে। অন্তত এমনটাই খবর দিয়েছে ফ্রান্সের জাতীয় দৈনিক এল’ইকিউপ। পত্রিকাটির বরাত দিয়ে মার্কা জানিয়েছে, নেইমার নাকি তার পরিবারকে এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন প্যারিসেই থাকছেন তিনি। তার ঘনিষ্ঠ-সূত্র উভয় ক্লাবকে (বার্সেলোনা ও পিএসজি) জানিয়ে দিয়েছে, পিএসজিতেই থাকছেন নেইমার।