এবার করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার হবে মানবদেহে উৎপাদিত গ্যাস

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:৪৫ অপরাহ্ণ, জুন ১, ২০২০ | আপডেট: ৭:৪৫:অপরাহ্ণ, জুন ১, ২০২০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। এই ভাইরাসের বিষাক্ত ছোবলে ইতোমধ্যে (সোমবার সকাল ১০টা পর্যন্ত) বিশ্বব্যাপী আক্রান্ত হয়েছে ৬২ লাখ ৬৬ হাজার ৮৭৫ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৯৬০ জনের।

প্রতি মুহূর্তে বাড়ছে এই আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। যেন এই ভাইরাসের কাছে অসহায় হয়ে পড়েছে আধুনিক বিশ্ব। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আমেরিকা। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১৮ লাখ ৩৭ হাজার ১৭৩ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৬ হাজার ১৯৫ জনের।

কিন্তু এখন পর্যন্ত করোনার চিকিৎসার ওষুধ আবিষ্কার হয়নি। চিকিৎসকরা করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের নানা রকম লক্ষণ দেখে চিকিৎসা দিচ্ছেন। তবে করোনার কার্যকর ও কম খরচে চিকিৎসার জন্য গবেষকদের মনোযোগ আকর্ষণ করেছে শক্তিশালী একটি গ্যাস। মানুষের শরীরে তৈরি নাইট্রিক অক্সাইড করোনার চিকিৎসায় ব্যবহার হওয়ার বিষয়টি পরীক্ষা করে দেখছেন বিজ্ঞানিরা।

গবেষণায় দেখা গেছে, রক্তনালী স্বাভাবিক রাখতে এবং ফুসফুস থেকে শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিকভাবে চলাচলে সহায়তা করছে নাইট্রিক অক্সাইড। নাক কিংবা মুখের মাধ্যমে নাইট্রিক অক্সাইড ব্যবহারের ফলে করোনা আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অবস্থায় থাকা রোগীরা সুফল পাচ্ছেন বলেও দাবি করেছেন গবেষকরা।

ব্রিটিশ কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটির গবেষকরা গবেষণাটি করছেন। চার লাখ মার্কিন ডলার বাজেটে গবেষণাটি করা হচ্ছে। আর গবেষণাটির নাম দেওয়া হয়েছে স্যানোটাইজ রিসার্চ।

গবেষক দলের প্রধান ক্রিস মিলার বলেছেন, এটা সত্যিই গুরুত্বপূর্ণ, আমরা শিগগিরই পরীক্ষা শেষ করবো। তারপর এর অনুমোদনের ব্যাপারে কথা হবে। তিন-চার মাসের মধ্যে সব কাজ শেষ করতে পারবো বলে মনে হচ্ছে। নাইট্রিক অক্সাইডের সহায়তায় রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা যাবে এবং ফুসফুস সচল রাখতে সহায়তা করবে