এমসি কলেজে ধর্ষণের প্রতিবাদে সিলেটের মেয়র, কাউন্সিলরদের পদযাত্রা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:৫০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ | আপডেট: ২:৫০:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

সিলেটের মুরারি চাঁদ (এমসি) কলেজের ছাত্রাবাস এলাকায় গণধর্ষণের ঘটনায় সিলেটে পুলিশ কমিশনার কার্যালয় অভিযুখে পদযাত্রা করেছেন সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। পরে তিনি পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে বৈঠক করে ঘটনাকারী ধর্ষকদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানান।

সিলেট সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুল আব্দুল আলীম শাহ জানিয়েছেন, এমসি কলেজের ক্যাম্পাসে গৃহবধু ধর্ষণের প্রতিবাদে দুপুরে নগর ভবন থেকে পদযাত্রা শুরু করেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও কাউন্সিলররা। এ সময় তারা উপশহরে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ে গিয়ে পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়ার কাছে ধর্ষকদের গ্রেপ্তার ও শাস্তি দাবি করেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় স্বামীর সঙ্গে এমসি কলেজে ঘুরতে এসেছিলেন ওই তরুণী। এ সময় কলেজ ক্যাম্পাস থেকে মহানগর ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী তাদের জোরপূর্বক কলেজের ছাত্রবাসে নিয়ে যায়।

সেখানে একটি কক্ষে স্বামীকে আটকে রেখে তরুণীকে গণধর্ষণ করে তারা। রাত ১১টায় শাহপরাণ থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে। বর্তমানে ওই তরুণী সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ঘটনায় ছয় জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও তিনজনকে আসামি করে শনিবার সকালে সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরান থানায় মামলা করেছিলেন ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী।

মামলার আসামিরা হলেন- এম সাইফুর রহমান, শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, তারেকুল ইসলাম তারেক, অর্জুন লঙ্কর, রবিউল হাসান ও মাহফুজুর রহমান মাসুম। এদের মধ্যে চারজন ওই কলেজের শিক্ষার্থী। এছাড়া আরও তিন জনকে অজ্ঞাত আসামি হিসেবে দেখানো হয়েছে।

ইতিমধ্যে গণধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি সাইফুর রহমান ও মামলার চার নম্বর আসামি অর্জুন লস্করকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এনিয়ে আলোচিত এই গণধর্ষণ মামলার দুই আসামি গ্রেফতার হলেন। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।