কথা বলবেন উপকারভোগীদের সাথে : রোববার রাঙ্গুনিয়ায় যুক্ত হয়ে ঘর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:৫৫ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২১ | আপডেট: ৭:৫৫:অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২১

জগলুল হুদা, রাঙ্গুনিয়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের নতুন নির্মিত সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার (২০ জুন) সকাল ১০ টার দিকে বেতাগী ইউনিয়নের বহলপুর গ্রামে সরাসরি সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কনফারেন্সে সেমি পাকাঘর হস্তান্তর করবেন তিনি। চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে একমাত্র রাঙ্গুনিয়ায় প্রধানমন্ত্রী সরাসরি উপকারভোগীদের সাথে কথা বলবেন।

শুক্রবার (১৮ জুন) বিকেলে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাসুদুর রহমান। ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকার সাংসদ ও চট্টগ্রামের উচ্চ পদস্থ সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন বলে তিনি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে ইউএনও মো. মাসুদুর রহমান বলেন, “ মুজিববর্ষে কেউ গৃহ ও ভূমিহীন থাকবে না’- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই ঘোষনা বাস্তবায়নে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে রাঙ্গুনিয়ার ভূমি ও গৃহহীন ৬০৬টি পরিবারের তালিকা করা হয়। প্রথম পর্যায়ে এরই মধ্যে দুই শতাংশ জমির সঙ্গে ঘর পেয়েছেন ১১৫টি পরিবার। দ্বিতীয় পর্যায়ে ৫০ পরিবারকে জমির সঙ্গে ঘর দেওয়া হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সরাসরি যুক্ত হয়ে জমি ও গৃহ প্রদান কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। গৃহায়নের পর ওই এলাকায় পাকা রাস্তা তৈরি, বিদ্যুৎ সংযোগ ও গভীর নলকূপ স্থাপন করা হয়েছে। ঘর পাওয়া এসব পরিবারগুলো সামাজিক বনায়নের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি পাবে।
এদিকে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি যুক্ত হয়ে গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান অনুষ্ঠানকে ঘিরে উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের বহলপুর গ্রামের অবকাঠামোগত বিভিন্ন উন্নয়ন করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৮ জুন) সকালে এই গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, পাহাড় বেষ্টিত এই এলাকায় নির্মিত আশ্রয়ণ পল্লীতে যাওয়ার জন্য বেহাল সড়কটির উন্নয়ন করা হয়েছে। আশ্রয়ণ পল্লীতে সরকারের নির্ধারিত একই নকশায় ওই স্থানে নির্মিত হয়েছে ৩০টি সেমিপাকা ঘর। দুই কক্ষবিশিষ্ট এসব ঘরে রান্নাঘর ও সংযুক্ত টয়লেট রয়েছে। টিউবওয়েল ও বিদ্যুৎ সংযোগও দেওয়া হয়েছে। প্রাকৃতিক মনোরম পরিবেশে নির্মাণাধীন এসব ঘরের কাছেই রয়েছে রামগতিরহাট বাজার, ঢেমিরছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাহাড়তলি-বেতাগী সড়ক ও মহামুনি বৌদ্ধ বিহারসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। এভাবে মনোরম পরিবেশে বেতাগী ইউনিয়নসহ রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা, রাজানগর, কোদালা, শিলক, সরফভাটা, পোমরা ইউনিয়নে আশ্রয়ণ প্রকল্পের এসব ঘর নির্মাণ কাজ শেষে উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।