করোনাকে দূরে রাখতে খাবেন যে ১০ খাবার

প্রকাশিত: ৯:৩০ অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২০ | আপডেট: ৯:৩০:অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২০
ছবিঃ সংগৃহীত

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা, বারবার হাত ধোয়া, পরিষ্কার থাকা আর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো- এখনও পর্যন্ত এগুলোই হলো করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচার উপায়। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি থাকলে ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই অনেক সহজ হয়। রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার ৭০-৭৫ শতাংশ আসে আমাদের প্রতিদিনের খাবার থেকে। আর বাকি ২৫-৩০ শতাংশ নিয়মিত ব্যয়াম ও কায়িক শ্রম থেকে গড়ে ওঠে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্যে কার্যকর ভূমিকা নেয় ভিটামিন সি, ভিটামিন ডি, আর দুটি অত্যন্ত দরকারি খনিজ জিঙ্ক ও সেলেনিয়াম। এবং অবশ্যই উচ্চমানের প্রোটিন। অবশ্য তার মানে এই নয় যে অন্যান্য ভিটামিন, খনিজ বা ফাইবার অপ্রয়োজনীয়। সুস্থ থাকার জন্য সুষম খাবার খাওয়া একান্ত প্রয়োজন।

যেসব খাবার আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে, সেগুলোর একটি তালিকা দেওয়া হলো। এ খাবারগুলো আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে তো বাড়িয়ে তুলবেই, সেই সঙ্গে করোনামুক্ত থাকতেও সাহায্য করবে।

১. সবজি: করলা (বিটা ক্যারোটিনসমৃদ্ধ), পারপেল/লাল পাতা কপি, বিট, ব্রোকলি, গাজর, টমেটো, মিষ্টি আলু, ক্যাপসিকাম, ফুলকপি।

২. শাক: যেকোনো ধরনের ও রঙের শাক।

৩. ফল: কমলালেবু, পেঁপে, আঙুর, আম, কিউই, আনার, তরমুজ, বেরি, জলপাই, আনারস ইত্যাদি।

৪. মসলা: আদা, রসুন, হলুদ, দারুচিনি, গোলমরিচ।

৫. বীজ জাতীয়: শিম বিচি, মটরশুঁটি

৬. টক দই: এটি প্রোবায়োটিকস, যা শ্বাসযন্ত্র ও পরিপাকতন্ত্র সংক্রমণের ঝুঁকি প্রতিরোধ করে।

৭. চা: গ্রিন টি, লাল চায়ে এল-থেনিন এবং ইজিসিজি নামক অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট থাকে, যা আমাদের শরীরে জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অনেক যৌগ তৈরি করে শরীরে রোগ প্রতিরোধব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে।

৮. সামুদ্রিক খাবার: সামুদ্রিক মাছ। এগুলো শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরির কোষ বৃদ্ধি করে। তাই এ ধরনের খাবার বেশি খেতে হবে।

৯. উচ্চ মানের আমিষজাতীয় খাবার (ডিম, মুরগির মাংস ইত্যাদি) বেশি করে খেতে হবে।

১০. বার্লি, ওটস, লাল চাল ও আটা, বাদাম।