করোনায় ছাত্রমৈত্রী নেতা পপলুর প্রাণহানি

প্রকাশিত: ৯:০৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ | আপডেট: ৯:০৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: ছাত্রমৈত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং মহানগর শাখার সাবেক নেতা যশোরের সন্তান মাফরোজ আলম পপলু (৫২) মারা গেছেন। তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে বেশ কিছুদিন যাবৎ ঢাকার আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতলে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সোমবার সন্ধ্যার দিকে তিনি মারা যান।

পপলু যশোর শহরের ষষ্টিতলাপাড়া বসন্ত কুমার সড়কের মৃত অ্যাডভোকেট এরশাদ আলীর ছেলে।

তার এক সময়কার রাজনৈতিক সহকর্মী বর্তমানে ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ যশোর জেলা শাখার সম্পাদক তসলিমুর রহমান জানিয়েছেন, গত ১৫দিন ধরে তিনি করোনায় আক্রন্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ৭দিন আগে ফুসফুস সঠিক ভাবে কাজ না করায় তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। সোমবার সন্ধ্যার দিকে লাইফ সাপোর্ট খুলে দেয়া হয়।

তিনি ছাত্রমৈত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া ঢাকা মাহনগর কমিটির নেতা ছিলেন পপলু।

জীবিকার প্রয়োজনে তিনি ঢাকায় বিভিন্ন কোম্পানিতে চাকরি করেছেন। সর্বশেষ ব্রাকের ফুড বিভাগের মার্কেটিং এর দায়িত্বে ছিলেন। মঙ্গলবার সকালে তার লাশ নিয়ে স্বজনরা ঢাকা থেকে রওনা দেবেন বলে পারিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। বিকেল নাগাদ ষষ্টিতলা পাড়ায় পৌছাতে পারে।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ যশোর জেলা শাখার সম্পাদক তসলিমুর রহমান, অন্যতম নেতা কামাল হাসান পলাশ, বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রী যশোর জেলা শাখার সভাপতি কৌশিক বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক রায়হান কবির প্রমুখ।