করোনায় বাতিল মাধ্যমিক পরীক্ষা, উচ্চ মাধ্যমিক স্থগিত করলো ভারত

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:০১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২১ | আপডেট: ৬:০১:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২১

দেশজুড়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাড়তে থাকায় অভিভাবক, শিক্ষার্থী, রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে সব শ্রেণীর মানুষের উদ্বেগ থেকে এই বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করেছে ভারত সরকার। একই সঙ্গে স্থগিত করা হয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাও।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি। আগামী ১ জুন কোভিড পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে ভারতের শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ভারত সরকারের এই ঘোষণার আওতায় পড়েছে প্রায় ৩৫ লাখ শিক্ষার্থী। সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

আগামী ৪ মে থেকে ১৪ জুন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো ভারতের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল জানিয়েছেন এই পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। নতুন তারিখ নির্ধারণ করতে আগামী ১ জুন বৈঠক হবে। আর পরীক্ষার্থীদের অন্তত ১৫ ডিদন সময় দিয়ে নতুন তারিখ ঘোষণা করা হবে।

আর বাতিল হয়ে যাওয়া মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল বোর্ড নির্ধারিত উপায়ে প্রস্তুত করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। আর যেসব শিক্ষার্থী নিজেদের ফলাফল নিয়ে সন্তুষ্ট হবে না তারা পরবর্তীতে যখন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে তখন তাতে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে।

ভারতে এই বছর প্রায় ২১ লাখ ৫০ হাজার শিক্ষার্থীর মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা ছিলো। আর প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থীর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

ভারতে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি বেড়েই চলেছে। বুধবার সকালে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও এক লাখ ৮৪ হাজার ৩৭২ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত এটিই দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের ঘটনা। ভারতে এ নিয়ে টানা অষ্টম দিনের মতো দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা লাখ ছাড়িয়েছে।