করোনায় মৃত হিন্দুব্যক্তির শেষকৃত্য করলেন মুসলিম-খ্রিস্টান যুবক

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৪১ অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২১ | আপডেট: ১২:৪১:অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২১

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভারতকে গ্রাস করেছে। কোনোভাবেই থামছে না দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর মিছিল। করোনা মৃত্যু হয়েছি সহায় সম্বলহীন হিন্দু বৃদ্ধটির। অক্সিজেন না পেয়ে ধুঁকতে ধুঁকতে প্রাণ যায় বৃদ্ধের। একে আর্থিক বল নেই, তার ওপরে কোভিড এ মৃত্যু।

দূর সম্পর্কের আত্মীয়রাও মুখ ঘুরিয়ে চলে যায়। বৃদ্ধের গলিত মৃতদেহ পড়ে থাকে বাড়িতে। পুতিগন্ধে ভরে যায় চারদিক। কেউ এগিয়ে আসেনা। মন কেঁদে ওঠে দুই যুবকের।

একজন ধর্মে মুসলমান (সাদ খান)। অন্যজন খ্রিস্টান (রাহুল জর্জ)। দুজনে এগিয়ে আসে। হিন্দু বৃদ্ধের মৃতদেহ তুলে নিয়ে গিয়ে সৎকার করে গ্রামের স্মশানে।

হিন্দু-মুসলমানের সংঘাত নিয়ে যখন তুমুল শোরগোল ভারতে, ঠান্ডাঘরে বসে কঙ্গনা রানাউতরা যখন টুইট করেন, বাংলায় হিন্দুদের গণহত্যা হচ্ছে বলে তখন এই সাদ খান, রাহুল জর্জদের কথা বোধহয় অশ্রুতই থেকে যায়। কোথায় কোন কর্ণাটকের শ্রীরঙাপত্তনের গ্রামে সাদ খান-রাহুল জর্জরা কি করল তাতে কি আসে যায়?

রাজনৈতিক আগুন জ্বালানোটা তার থেকেও বেশি জরুরি না? সাদ খান কিংবা রাহুল জর্জরা কিন্তু এতবড়ো একটা কাজ করে এখনও কুন্ঠিত- হিন্দুর দেহ সৎকার করলাম। আচার আচরণ ঠিক মত পালন করেছি তো? কে বলে দেবে সাদ খান আর রাহুল জর্জকে যে তারা শুধু একটি দেহকেই দাহ করেনি। পুড়িয়ে এসেছে অসূয়া, বিদ্বেষ আর জাতপাতের সংকীর্ণতাকে!