করোনা উপসর্গ নিয়ে এবার হাসপাতালে কবরীর ছেলে

প্রকাশিত: ৬:১৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১ | আপডেট: ৬:১৫:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১
কবরী ও শাকের চিশতী। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ এপ্রিল রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন দেশ বরেণ্য অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী।

এবার মহামারি করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন প্রয়াত এই অভিনেত্রীর ছেলে শাকের চিশতী। করোনা পরীক্ষা শেষে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

এখনও পর্যন্ত টেস্টের রিপোর্ট পাননি শাকের চিশতী। তবে জ্বর, স্বাদ-গন্ধ না পাওয়ার পাশাপাশি অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৯৫–এর নিচে নেমে যাওয়ায় পারিবারিক চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি।

গণমাধ্যমকে শাকের বলেন, ‘ফুসফুসের সিটি স্ক্যান করানো হয়েছে। এখনও রিপোর্ট হাতে পাইনি। করোনার টেস্টও করানো হবে। জ্বর, স্বাদ-গন্ধ না পাওয়ার পাশাপাশি অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৯৫–এর নিচে নেমে যাওয়ায় ঘাবড়ে যাই। তাই দ্রুত পারিবারিক চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে হাসপাতালে এসেছি।’

বরেণ্য অভিনেত্রী কবরী করোনাক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখতেন শাকের চিশতী। পাঁচ ছেলের মধ্যে চতুর্থ তিনি। এর মধ্যে বড় তিন ছেলে দেশের বাইরে এবং ছোট ছেলে অটিজমের সমস্যা থাকায় মায়ের যাবতীয় দেখভাল করছিলেন শাকের। সেখান থেকেই করোনা সংক্রমণের আশংকা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি প্রথম প্রহরে দিকে ১২টা ২০ মিনিটে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন কবরী। তিনি গত ৫ এপ্রিল করোনা পজিটিভ হয়েছিলেন। ৭ এপ্রিল রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়। ১৫ এপ্রিল লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল তাকে। পরে সবাইকে কাঁদিয়ে পরপারে পাড়ি জমান এই গুণী শিল্পী।