করোনা ঝুঁকিতে দেশের পথশিশুরা!

প্রকাশিত: ৫:২২ অপরাহ্ণ, মার্চ ২২, ২০২০ | আপডেট: ৫:২২:অপরাহ্ণ, মার্চ ২২, ২০২০

করোনা ভাইরাস আক্রান্ত বিশ্বের ১৮১ টি দেশ। ইতিমধ্যে ইতালি, ইরান,চায়না, বাংলাদেশ সহ মোট লাশের সংখ্যা ১১ হাজার ছাড়িয়েছে। যেখানে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা (হু) বলছে, জরুরী ভিত্তিতে লক ডাউন করতে সেখানে কতটা স্বাস্থ্য সচেতন আমাদের দেশের ছিন্নমূল পথশিশু ও ভিক্ষারত শিশুরা। অনুসন্ধান তথ্য বলছে, এয়ারপোর্ট, রেল স্টেশন, বাস স্টেশন সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভিক্ষারত অসংখ্য পিতা, মাতা তাদের কোলে থাকে বিভিন্ন শিশু।

কোনও বিদেশী নাগরিক বা প্রবাসী’র স্পর্শ এসে যদি কোনও পিতা-মাতা এই ভাইরাস আক্রান্ত হোন। তা দ্রুত ই ছড়িয়ে পড়বে নিজ কোলের সন্তান সহ অন্যদের মাঝে।কথা হয়েছে অনেক ভিক্ষারত মা, বাবার সাথে যারা এখনো জানেন ই না করোনা ভাইরাস কি?কথা হয়েছে, ৮ বছর বয়সী রাসেলের সাথে সে ঢাকা মিরপুর বস্তিতে থাকতো এখন এয়ারপোর্ট ভিক্ষা করে।করোনা নিয়ে প্রশ্ন করতেই দৌড় দিয়ে চলে যায়।

কথা হয় কাওরানবাজার রেললাইন তানজিলার সাথে।অন্ধ বাবাকে নিয়ে ভিক্ষা করতে বের হয় সে।করোনা ভাইরাস নিয়ে জিজ্ঞেস করতে ই বলে, জানেনা।কথা হয় রবিনের সাথে। ৭ বছর বয়সী রবিন বন্ধুদের সঙ্গে ভিক্ষা করে ফার্মগেট।করোনা ভাইরাস নিয়ে প্রশ্ন করতে ই তারা ছুটাছুটি করে জানায় এইগুলো তাদের ধরবেনা।কিন্তু কোলে নিয়ে ভিক্ষারত শিশু ‘র পিতা-মাতারা আরও উদাসীন এই ব্যাপারে।

দ্রুত পদক্ষেপ না নিলে ৫ থেকে ১২ বছর বয়সী ছিন্নমূল ভিক্ষারত পথশিশু আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা আছে প্রচুর। এমনকি তাদের দ্বারা নিজ পিতা-মাতা, বন্ধু ও ছোট ভাইবোন আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ফেলে দেওয়ার মতো নয়।

লেখক: আরিফ রহমান শিবলী
মানবাধিকার কর্মী ও সদস্য, অ্যামেনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।