করোনা-বন্যা: মুম্বাইয়ে রেড অ্যালার্ট জারি

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:১৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৪, ২০২০ | আপডেট: ৯:১৩:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৪, ২০২০

নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণে দিশেহারা গোটা ভারত। দেশটিতে প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর সারি। এরই মধ্যে দেশটির বাণিজ্যিক নগরী মুম্বাইয়ে নতুন করে দেখা দিয়ে আরেক জনদুর্ভোগ। রাতভর টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে গোটা শহর। সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। এমতাবস্থায় নগরীতে রেড অ্যালার্ট ঘোষণা করেছে দেশটির আবহাওয়া বিভাগ (আইএমডি)।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, সোমবার (৩ আগস্ট) রাত ৮টা থেকে মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) সকাল ৬টা পর্যন্ত ১০ ঘণ্টায় মুম্বাইয়ে ২৩০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া পূর্ব ও পশ্চিমাঞ্চলীয় উপশহরে ১৬২.৮৩ এবং ১৬২.২৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। যা আগামীকাল বুধবারও অব্যাহত থাকতে পারে।

মুম্বাই ছাড়াও মহারাষ্ট্রের থানে, পুনে, রাইগাদ এবং রত্নাগিরিতে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে জরুরি সেবা ছাড়া সব অফিস এদিন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে রাতভর ভারী বৃষ্টিপাতে গরিগাঁও, কিং সার্কেল, হিন্দমাতা, দাদার, শিবাজী চক, শেল কলনি, কুরাল এসটি ডিপোট, বান্দ্রা তালকিয়েস, সাইয়ন রোড ২৪-এ পানি জমে জলাবদ্ধতা তৈরি হয়েছে। কোথাও কোথাও পানি কোমর ছাড়িয়েছে। এর ফলে সকালে ঘর থেকে বেরিয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন কর্মজীবী মানুষ।

ভারতের আবহাওয়া অফিস সতর্ক করে জানিয়েছে, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের উপর তৈরি হওয়া নিম্নচাপ আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। এর ফলে মধ্য মহারাষ্ট্রে, কোঙ্কন, গোয়া ও তার পার্শ্ববর্তী প্রত্যন্ত এলাকায় মঙ্গলবার, বুধবার ও বৃহস্পতিবার প্রবল ভারী বর্ষণ হতে পারে।

বর্ষা মৌসুমে মুম্বাইয়ের সড়কে পানি জমে যাওয়ার চিত্র নতুন নয়। জুন থেকে সেপ্টেম্বর এমনকি অক্টোবর মাস পর্যন্ত মওসুমী ভারী বর্ষণে প্রায় সময়ই মুম্বাইবাসীকে জলাবদ্ধতায় নাকাল হতে হয়।