করোনা মোকাবেলায় ২ হাজার চিকিৎসক ও ৬ হাজার নার্স নিয়োগ হচ্ছে

প্রকাশিত: ৩:১৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০২০ | আপডেট: ৩:১৪:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০২০

করোনা পরিস্থিতিতে মোকাবিলার জন্য ২ হাজার নার্স ও ৬ হাজার নার্স নিয়োগের পরিকল্পনা করেছে সরকার।

বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) মহাখালী থেকে নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে যুক্ত হয়ে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমরা লক্ষ করছি, বেশকিছু হাসপাতালে রোগীদের সেবা দিতে গিয়ে আমাদের বেশকিছু চিকিৎসক, নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হয়েছেন। তার জন্য আমরা দুঃখ প্রকাশ করি এবং তাদের সুস্থতা কামনা করি। কারণ তারাই কোভিডের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছেন।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘যেহেতু আমরা নতুন নতুন হাসপাতাল কোডিভ রোগীদের জন্য প্রস্তুত করছি। এবং বেশকিছু ডাক্তারকে কোয়ারেন্টিনে যেতে হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় নতুন দুই হাজার ডাক্তার এবং ছয় হাজার নার্স নিয়োগের ব্যবস্থা আমরা করছি। আমরা আশা করি, এই নিয়োগের মাধ্যমে আমাদের স্বাস্থ্যসেবা আগামীতে আরো জোরদার হবে।’

এদিকে দুই হাজার চিকিৎসক ও ছয় হাজার নার্স নিয়োগের সিদ্ধান্তকে ধন্যবাদ জানিয়ে অতিদ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছে স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদ (স্বানাপ)।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় স্বানাপের মহাসচিব মো. ইকবাল হোসেন সবুজ এক প্রেস বিজ্ঞতিতে বলেন, দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে সরকারের এ সিদ্ধান্তকে সংগঠনের পক্ষ থেকে সাধুবাদ জানাই।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশেনের হিসেবে, কোভিড-১৯ সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সারাদেশে ২১৫ জন চিকিৎসক, ৬৬ জন নার্স এবং ১৮৮ স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে, দেশে চিকিৎসকসহ প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মকর্তা-কর্মচারী আছেন ৭৮ হাজার ৩০০ জন। এরমধ্যে চিকিৎসক পদে রয়েছেন ২৭ হাজার ৪০৯ জন।

বাংলাদেশ নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারি কাউন্সিল, বিডিএমসির হিসাবে দেশে রেজিস্টার্ড নার্সের সংখ্যা ৫৬ হাজার ৭৩৪ জন।

বাংলাদেশের ১ হাজার ৫৮১ জন মানুষের জন্য ১ জন রেজিস্টার্ড চিকিৎসক। প্রতি ১০ হাজার মানুষের জন্য চিকিৎসক ৬ দশমিক ৩৩ জন। প্রতি ১০ হাজার মানুষের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আওতায় চিকিৎসকের সংখ্যা ১ দশমিক ২৮ জন।