কাভানি নেইমার এমবাপ্পের এ কোন আভাস?

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:২৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৬, ২০১৮ | আপডেট: ২:২৯:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৬, ২০১৮

এডিনসন কাভানি, নেইমার, কিলিয়ান এমবাপ্পে-প্রত্যেকেই গোল করলেন। প্রত্যাশিত জয়ও পেয়েছে পিএসজি। আঙ্গারকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে দলটি। এ নিয়ে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে টানা ৩ ম্যাচে জয় পেল দ্য পারিসিয়ানরা।

রাশিয়া বিশ্বকাপে চোট পেয়েছিলেন কাভানি। সদ্যই ইনজুরি থেকে সেরে উঠেছেন তিনি। এ প্রথম লিগে মাঠে নেমেছিলেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। তাতেই বাজিমাত। ১২ মিনিটে নেইমারের ক্রস থেকে গোল করে দলকে লিড এনে দেন হালের অন্যতম সেরা গোলস্কোরার।

তবে পিএসজির হাসিটা বেশিক্ষণ থাকেনি।২১ মিনিটে নিজেদের ভুলে গোল খেয়ে বসে প্যারিসের দলটি।ডি বক্সে প্রতিপক্ষ স্ট্রাইকারকে অযাচিত ট্যাকলের খেসারত গোনে থমাস টুখেলের শিষ্যরা। পেনাল্টি থেকে নিশানাভেদ করে আঙ্গারকে সমতায় ফেরান ম্যানগানি।

এরপর খেলা ওপেন হয়ে যায়। খেল দেখাতে থাকেন কাভানি নেইমার এমবাপ্পে।এ ত্রয়ীর পায়ের জাদুতে খেই হারিয়ে ফেলে আঙ্গার। তবে সাফল্য মিলছিল না। এতে ১-১ সমতা নিয়ে বিরতিতে যায় দুদল।

বিরতির পর আর কাভানি নেইমার এমবাপ্পেকে ঠেকানো যায়নি। তাতে বাড়তি জ্বালানি জোগান অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। ৫১ মিনিটে এ আর্জেন্টাইন উইঙ্গারের ক্রস ধরে বল ঠিকানায় পাঠান এমবাপ্পে।

এগিয়ে গিয়ে আরও আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠে পিএসজি। বারবার আক্রমণে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে প্যারিসের দলটি। ফলে ব্যবধান বাড়তেও খুব একটা সময় লাগেনি। ৬৬ মিনিটে এমবাপ্পের পাস থেকে বল জালে জড়ান নেইমার।

পরে আঙ্গারকে নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করে পিএসজি। মুহুর্মুহু আক্রমণে প্রতিপক্ষকে কোণঠাসা করে ফেলে তারা। তবে আর গোল পাননি নেইমাররা। নেপথ্যে ছিল আঙ্গার গোলরক্ষকের বীরোচিত পারফরম্যান্স। শেষভাগ্যে চীনের প্রাচীর হয়ে দাঁড়ান লুদভেক বুতেল্লে।ফলে ৩-১ গোলের জয় নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের।

ম্যাচ শেষে এক বিবৃতিতে পিএসজি জানায়, জয়টা অবশ্যই বড় কিছু। তবে তার চেয়েও বড় দলের আক্রমণভাগের ত্রয়ীর জ্বলে ওঠা। এভাবে চলতে থাকলে আমরা ভালো কিছুর প্রত্যাশা করতে পারি।

সেই বিবৃতিতে যেন পরোক্ষভাবে মিশে থাকল প্রতিপক্ষের জন্য সাবধানী ও সতর্কবার্তা। কাভানি নেইমার এমবাপ্পেরা এমন ফর্মে থাকলে তাদের ভাগ্যে শনিদশা থাকছে বলাই যায়!