কালিয়াকৈরে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি, আহত ৩

টাকা, স্বর্ণালংকারসহ মালামাল লুট

প্রকাশিত: ৪:৫০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯ | আপডেট: ৪:৫০:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে রোববার ভোর রাতে এক ধান ব্যবসায়ীর বাসায় ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি করা হয়েছে। লুট করা হয়েছে টাকা, স্বর্ণালংকারসহ বিভিন্ন মূল্যবান মালামাল। ডাকাত সদস্যদের হামলায় তিনজন আহত হয়েছেন।

আহত হলেন- কালিয়াকৈর উপজেলার উত্তর হিজলতলী এলাকার চাঁন মিয়ার ছেলে মহব্বত হোসেন, মহব্বত হোসেনের স্ত্রী সানজিদা ইয়াসমিন মুন্নি ও তাদের ছেলে মেহেরাব হোসেন মাহিব।

এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার উত্তর হিজলতলী এলাকার মহব্বত হোসেনের বাসার রোববার ভোর রাতে এ ঘটনা ঘটে। ভোর রাত ৩টার দিকে ৫-৭ জনের একদল ডাকাত বাসার কেচি গেইটের তালা কেটে বাড়ির ২য় তলায় উঠে। পরে তারা সাবল দিয়ে ২য় তলার মেইন দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে।

এসময় ডাকাত সদস্যরা নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে ঘরের দরজা খুলতে বলেন। এদের মধ্যে দুই ডাকাত সদস্যের মুখ কাপড় ঢাকা ছিল। পরে তারা একজন মহিলা আসামী ধরতে আসছি বলেই ওই ব্যবসায়ীর ঘরের ভিতরে ঢুকে।

এসময় বাড়ীর মালিক মহব্বত হোসেন, তার স্ত্রী সানজিদা ইয়াসমিন মুন্নি ও ছেলে মেহেরাব হোসেন মাহিবকে হাত-পা, চোখ ও মুখ বেধে ফেলে। পরে তাদের ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রায় দেড় লক্ষ টাকা, ৩-৪ ভরি ওজনের স্বর্ণ ও বিভিন্ন মালামাল লুট করে পালিয়ে যায়।

এসময় তাদের ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গাজীপুর সদর) তোফাজ্জল হোসেন ও কালিয়াকৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন। এ ঘটনায় মহব্বত হোসেন বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

ওই ব্যবসায়ী মহব্বত হোসেন ও তার স্ত্রী সানজিদা ইয়াসমিন মুন্নি জানান, কেচি গেইটের তালা কেটে ও ২য় তলার মুল দরজা ভেঙ্গে ভিতওে প্রবেশ করে। পরে তারা নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে মহিলা আসামি ধরতে আসছে বলে জানায়। আমার ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এবং লুট করে।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন মজুমদার জানান, ডাকাতির খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফাজ্জল হোসেন ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।