কালীগঞ্জে গণপিটুনিতে দুই ডাকাত নিহত

প্রকাশিত: ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯ | আপডেট: ১:০২:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯
ফাইল ছবি

নাসির উদ্দীন বুলবুল, গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি: গাজীপুরের কালীগঞ্জে ডাকাতি করতে গিয়ে গণপিটুনিতে দুই ডাকাত নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার রাথুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত দুইজনের মধ্যে একজন নরসিংদীর ওমর ফারুক বলে জানা গেছে। অপরজন অজ্ঞাত (৪০)। এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে নাগরী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আবদুল মান্নান জানান, রাত ১টার দিকে একদল ডাকাত রাথুরা গ্রামের মাওলানা মজনুর বাড়িতে হানা দিয়ে মোবাইল ফোন ও স্বর্ণালংকার লুট করে।
Add Image
পরে ডাকাত দল পাশের সায়েম আকন্দের বাড়িতে হানা দেয়। মেইন গেইট কেটে ঘরের দরজা ভাঙ্গার সময় টের পেয়ে মোবাইল ফোনে মসজিদের ইমামকে জানায়। ইমাম মাইকে গ্রামের লোকজনকে গ্রামে ডাকাত পড়ার খবর জানায়।

গ্রামের মানুষ লাঠিসোটা নিয়ে জড়ো হয়ে চারদিক থেকে ডাকাতদের ঘিরে ফেলে। এ সময় অন্যরা পালিয়ে যেতে পারলেও দুই ডাকাত ধরা পড়ে। তাদের রাথুরা প্রাইমারী স্কুলে নিয়ে গণপিটুনি দেয় উত্তেজিত জনতা।

এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। তিনি আরো জানান, মৃত্যুর আগে একজনের নাম ওমর ফারুক, বাড়ি নরসিংদী বলে গেছে। তার বয়স আনুমানিক ২৬-২৬ বছর। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এদিকে স্থানীয়রা জানায়, এলাকায় প্রায়ই ডাকাতি হচ্ছিল। কিন্তু থানায় গেলে মামলা নেওয়া হচ্ছিল না। এসব নিয়ে এলাকার মানুষের মধ্যে ডাকাত আতঙ্ক এবং ক্ষোভ বিরাজ করছিল। ওই ক্ষোভ থেকেই গণপিটুনির ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার ওসি আবু বকর মিয়া জানান, নিহত ডাকাতদের পরিচয় উদ্ধার এবং অন্য ডাকাতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।