কিসের ইভিএম-টিভিএম? ঠ্যাং ভেঙে দেবো: ইসিকে দুদুর হুঁশিয়ারি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৩৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮ | আপডেট: ৫:৩৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮

টিবিটি রাজনীতিঃনির্বাচন কমিশনারের উদ্দেশ্যে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, ‘নির্বাচন কমিশনারকে বলতে চাই, আপনাদের কিসের ইভিএম-টিভিএম? বেশি বাড়াবাড়ি করলে ঠ্যাং ভেঙে দেবো।’

শনিবার (১ সেপ্টেম্বর) বিএনপির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে আয়োজিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘আজকের এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে সারারাত হাসিনা সরকার তার পুলিশ বাহিনীকে লেলিয়ে দিয়েছিল আমাদের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। আজকের এই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে হাসিনা সরকারের উদ্দেশ্যে বলে যেতে চাই, ডিসেম্বর-জানুয়ারির মধ্যে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এই দেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন। ’

‘শেখ হাসিনাকে অনেক বার বলেছি, বলতে বলতে মুখে ফেনা উঠে গেছে, বেগম জিয়ার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। তাঁর রুমটা একটু ভালো করেন। কিন্তু আপনি তা শোনেন নাই। বেগম জিয়া প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর সেদিন কি আপনি এই দেশ থেকে পালিয়ে যেতে পারবেন? কথা খুব পরিষ্কার, ব্যাংক থেকে নিয়েছেন ৪ হাজার কোটি টাকা। সেই টাকা আপনাকে দিতে হবে। এটা বাংলাদেশের টাকা।’

শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে দুদু আরও বলেন, ‘আমাদের ইলিয়াছ আলীকে ফেরত দেবেন না? চৌধুরী আলমকে ফেরত দেবেন না? বেগম জিয়াকে যেখানে রেখেছেন আঁচতে আঁচতে বলি- আপনি সেখানে ঢুকবেন কিন্তু কবে বেড়োবেন- সেটা কেউ বলতে পারবে না। সংসদ ভেঙে দিন, পদত্যাগ করুন। সমানে সমানে আসুন- তারপর দেখবো কত ধানে কত চাল ‘

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘দেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেছেন জিয়াউর রহমান, রণাঙ্গনে যুদ্ধ করেছে জিয়া ও তাঁর বাহিনী। আপনার বাপের দেশ যা খুশি তাই করবেন? বেগম জিয়াকে ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে যাবে না। আমরা বেগম জিয়াকে নিয়েই নির্বাচনে যাবো।’

বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, ‘তারেক রহমান কি অন্যায় করেছে? জিয়াউর রহমান আপনাকে দেশে আসার সুযোগ দিয়েছিলেন আর আপনি তাঁর ছেলেকে দেশে আসতে দিচ্ছে না। কথা একটাই বাংলাদেশ জিয়ার দেশ, বাংলাদেশ খালেদা জিয়ার দেশ, বাংলাদেশ হচ্ছে তারেক রহমানের দেশ। এই দেশে থাকতে হলে আইনের আওতায় থাকতে হবে। মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমানের কথামতো থাকতে হবে।’