কুমারখালীতে সংখ্যালঘুদের বাড়িতে ঢুকে হামলার অভিযোগ

প্রকাশিত: ৮:৫৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ৬, ২০২১ | আপডেট: ৮:৫৯:অপরাহ্ণ, মার্চ ৬, ২০২১

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার পান্টি ইউনিয়নে পিতম্বরবশি কামারপাড়ায় বেশ কিছুদিন ধরে চলে আসা সামাজিক কোন্দলের জের ধরে সংখ্যালঘুদের বাড়িতে ঢুকে হামলার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (৬ মার্চ) সকালে মৃত রাথানথ মন্ডলের ছেলে বীরেন্দ্রনাথ মন্ডলের বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় হামলাকারীরা বীরেন্দ্রনাথ মন্ডল,তার স্ত্রী সুচিত্রা, ভাই বিনয় মন্ডল ও তার মা বিশাখা রানী মন্ডলকে মারপিট ও ঘরের দরজা ভাংচুর করে।

সরেজমিন গিয়ে জানা গেছে, নরেন্দ্রনাথ মণ্ডলের ছেলে সনজিৎ মন্ডলের সাথে কথা কাটাকাটি হয় একই গ্রামের রাধানাথ মণ্ডলের ছেলে বীরেন্দ্রনাথ মন্ডলের। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বীরেন্দ্রনাথ মন্ডল পরিবারের ওপর সনজিৎ মন্ডল গং সকাল আটটার সময় অতর্কিত হামলা চালায়।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী বীরেন্দ্র নাথ মন্ডল জানান, কথা কাটাকাটির পরপরই সনজিৎ বাড়িতে যায় এবং সাথে এরশাদ, ওয়াজেদ, রাসেল, শিপনসহ আরও কয়েকজনকে সাথে নিয়ে আমার বাড়ির ওপর এসে লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায়। এসময় তারা ঘরের দরজা ভেঙে ফেলা। হামলায় আমি আমার ভাই বিনয় মন্ডল, আমার মা বিশখা রানী মন্ডল এবং আমার স্ত্রীকে মারপিট করে।বিনয় মন্ডল বলেন, আমার মা এবং বৌদিদির শরীরের কাপড় ছিড়ে ফেলে এবং মায়ের কানের একটি স্বর্ণের দুল হারিয়ে যায়।

বীরেন্দ্রনাথ মন্ডলের স্ত্রী সুচিত্রা বলেন, আমরা সংখ্যা লঘু।আমরা ভয়ে বাড়ির বাইরে যেতে পারছিনা।আমারা নিরাপদে বসবাস করতে চাই।

বিষয়টি জানাজানি হলে গ্রামের বেশ উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে চৌরঙ্গী তদন্ত কেন্দ্র থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং পরবর্তীতে পরিবেশ স্বাভাবিক হয়।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত সনজিৎ মন্ডল জানান, আমাদের বিরুদ্ধে বীরেন্দ্র নাথের বাড়িতে হামলার যে অভিযোগ করা হয়েছে সেটা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বানোয়াট। পীতম্বরবসি সার্বোজনিন মন্দির কমিটির সভাপতি দেব দুলাল দীর্ঘদিন মন্দিরের কোনো হিসাব দেয় না এই বিষয়ে আমরা হিসাব চাইতে গেলে নানা বাহনা করে। আজ সকালে দেব দুলালের ইন্ধনে বীরেন্দ্র নাথ তার বাড়িতে হামলার নাটক সাজিয়েছে। ওরাই আরও এরশাদ, ওয়াজেদ, রাসেল, শিপনের ওপর হামলার চেষ্টা চালায়। আমরা এই গ্রামে হিন্দু মুসলিম সম্প্রীতির বন্ধনে এক সাথে বসবাস করছি। মন্দির কমিটি কেন্দ্রীক ঝামেলাকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করতে দেবদুলাল নানারকম উস্কানি দিচ্ছে।

এবিষয়ে পীতম্বরবশী সর্বজনীন পূজা মন্দিরের সভাপতি দেবদুলাল বলেন, হিন্দুদের সামাজিক কোন্দলকে পুঁজি করে এখানকার কিছু মুসলিম উত্তেজনার পায়তারা করে আছে। কথাকাটির জেরে আজ বীরেন্দ্রনাথ মন্ডলের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে আলতাফ সর্দারের লোকজন। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়।

তিনি আরো বলেন, আমরা সবাই মিলেমিশে বসবাস করতে চাই।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান জানান, কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে উত্তেজনার খবর শুনেছি, লিখিত কোনো অভিযোগ পায়নি।