কুলাউড়ায় তৃতীয় শ্রেনীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ, আটক এক

শাকির আহমদ শাকির আহমদ

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:১৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৯ | আপডেট: ১২:১৫:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৯
সংগৃহীত

শাকির আহমদ, কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল লুমডনবগ মিশন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেনীর এক শিক্ষার্থী (৯)-কে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সে বরমচাল চা বাগানের এক চা শ্রমিকের মেয়ে।

৫ ফেব্রæয়ারী মঙ্গলবার ধর্ষিতার পিতা নিজে বাদী হয়ে কুলাউড়া থানায় একটি মামলা (নং ০৪) দায়ের করেন। বুধবার ভোরে মামলায় অভিযুক্ত উপজেলার বরমচাল চা বাগানের গোয়াবাড়ি লাইনের মৃত অবিরাম পাত্রের ছেলে রঞ্জিত পাত্র (৪২)-কে আটক করেছে কুলাউড়া থানা পুলিশ।

জানা গেছে, গত রোববার দুপুরের দিকে উপজেলার বরমচাল চা বাগানের গোয়াবাড়ি লাইনের মৃত অবিরাম পাত্রের ছেলে রঞ্জিত পাত্র (৪২) ওই ছাত্রীর চাচার ঘরে কাজ করছিলো। এক পর্যায়ে আশেপাশে কেউ না থাকায় রঞ্জিত বরমচাল লুমডনবগ মিশন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওই ছাত্রীকে অর্থের প্রলোভন পার্শ্ববর্তী তার নিজ ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে।

এরপর একদিন ছাত্রীটি বিদ্যালয়ে অনুুপস্থিত থাকে। পরেরদিন অর্থাৎ গত মঙ্গলবার বিদ্যালয়ে ছাত্রীটি উপস্থিত হলে তার হাটা চলায় শিক্ষকদের সন্দেহ হয়। খবর পেয়ে স্থানীয় শিশু নিরাপত্তা অফিসার সে তু রিচেল বিদ্যালয়ে এসে ছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে এসব তথ্য জানায়।

পরে ছাত্রীর অভিভাবকদের ডেকে এনে বিষয়টি অবহিত করলে ছাত্রীর বাবা কুলাউড়া থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করেন। কুলাউড়া থানার এসআই আনোয়ার হোসেন ও এএসআই এরশাদ আলীর নেতৃত্বে বুধবার ভোরে অভিযান পরিচালনা করে করে অভিযুক্তকে আটক করা হয়।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামীম মুসা আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেন।