কেন্দুয়ায় ভূমিহীন ও গৃহহীন ৫০ পরিবারকে জমিসহ বাড়ি প্রদান

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:৩১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২১ | আপডেট: ১:৩১:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২১

মাঈন উদ্দিন সরকার রয়েল, কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি: মুজিব বর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে জমিসহ ঘর প্রদান করা হয়েছে। আশ্রয়নের অধিকার-প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার গৃহহীন ও ভূমিহীনদের মাঝে ৫০টি পাকা ঘর দেওয়া হয়েছে।

আজ ২৩ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের অন্যান্য জেলা-উপজেলার সঙ্গে একযোগে হস্তান্তর করা হয় এসব পাকা ঘরের চাবি। কেন্দুয়ায় প্রথম ধাপে ৫০টি ঘরের নির্মাণ কাজ শেষে তা হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে গত ২৪ নভেম্বর উপজেলার সান্দিকোণা গ্রামে গৃহ নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন নেত্রকোণা-৩ (কেন্দুয়া-আটপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য অসীম কুমার উকিল। জেলা প্রশাসকের তত্ত্বাবধানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.মইনউদ্দিন খন্দকারের নেতৃত্বে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. খবিরুল আহসান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেহেদী হাসান মৃধা, ত্রান শাখার উপসহকারী প্রকৌশলী কাজী মাজহারুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যগণের কঠোর তদারকিতে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে কেন্দুয়া উপজেলার ৫০ জন উপকারভোগীর মধ্যে ৪০ জন ভূমিহীনকে খাস জমি বন্দোবস্তের মাধ্যমে এবং বাকী ১০ জন ভূমিহীনকে আত্মীয় ও এলাকার গণ্যমান্যব্যক্তির দান করা জমির ওপর এসব ঘর নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।

উপকারভোগী পরিবারের স্বামী-স্ত্রীর নামে জায়গা কবুলিয়াত দলিল এবং নামজারি সম্পাদন করে দেয়া হয়েছে। ৫০টি ঘরে মধ্যে ১৫টি হলো প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আর ৩৫টি হলো দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের প্রকল্প। সান্দিকোনা ইউনিয়নে ৬টি, দল্পা ইউনিয়নে ১২টি,আশুজিয়া ইউনিয়নে ৪টি, বলাইশিমূল ইউনিয়নে ১০টি, কান্দিউড়া ইউনিয়নে ১৩টি।

নওপাড়া ৪টি ও পাইকুড়া ১টি ঘর নির্মাণ করে তা উপকার ভোগীদের মাঝে হস্তান্তর করা হয়েছে। কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মঈন উদ্দিন খন্দকারের সভাপতিত্বে ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানগণ,পৌর মেয়র, কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ,বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযুদ্ধা,সাংবাদিক ও উপকার ভোগীগণ।