‘কেরালার বানভাসিদের সাহায্যে প্রস্তুত পাকিস্তান’

প্রকাশিত: ৬:২৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৮ | আপডেট: ৬:২৫:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৮

কেরালার বানভাসী মানুষদের জন্য সাহা‌য্য করতে চান পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

বৃহস্পতিবার (২৩ আগস্ট) ট্যুইট করেছেন, পাকিস্তানের মানুষদের পক্ষ থেকে কেরালার মানুষদের জন্য আমরা প্রার্থনা করছি। বন্যা বিধ্বস্ত মানুষরা দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসুন।

পাক প্রধানমন্ত্রী আরও লিখেছেন, বন্যদুর্গত মানুষদের জন্য ‌যে কোনও ধরনের মানবিক সাহা‌য্য করতে পাকিস্তান প্রস্তুত।

উল্লেখ্য, কেরালার নজিরবিহীন বন্যায় ইতিমধ্যেই মৃত্যুর সংখ্যা চারশ ছুঁইছুঁই। ১৪ লাখ মানুষ ঘরছাড়া। টানা বৃষ্টি ও জলাধার থেকে ছাড়া পানিতে রাজ্যের ৮টি জেলা প্রায় ভেসে গেছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখথনও প‌র্যন্ত ২০,০০০ কোটি টাকা।

এরকম এক অবস্থায় কেরালা সরকার কেন্দ্রের কাছ থেকে ২৬০০ কোটি টাকা সাহা‌য্য চেয়েছে। কিন্তু কেন্দ্র ৬০০ কোটি টাকা দেওয়ার কথা বলেছে।

এদিকে, বিদেশ থেকে সাহা‌য্য নেওয়ার ব্যাপারে আপত্তি রয়েছে কেন্দ্রের। এমনটাই সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

সম্প্রতি একটি জল্পনা তৈরি হয়েছিল, সং‌যুক্ত আরব আমিরশাহি সরকার কেরালাকে ৭০০ কোটি টাকা সাহা‌য্য দিতে চায়। ওই কথা ওঠার পরই সরকার জানিয়ে দেয় কোনও বিদেশি সাহা‌য্য নেবে না ভারত। ফলে ইমরান খান সাহা‌য্য করতে চাইলেও তা নেবে না ভারত। অর্থাৎ কেরলের মানুষের জন্য ইমারানের বার্তা কোনও খুশির খবরই নয়।

গত শুক্রবারই পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন ইমরান খান। তার পরেই তিনি ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার কথা ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, ভারত এক কদম বাড়ালে পাকিস্তান দুই কদম এগোবে। তবে ভারতকে সাহা‌য্য করলে তার কতটা রাজনৈতিক ফয়দা হবে তানিয়ে প্রশ্ন থেকেই ‌যাচ্ছে।