কোহলি-আনুশকার ‘ডিভোর্স’ চান এই বিজেপি নেতা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:২৬ অপরাহ্ণ, মে ২৭, ২০২০ | আপডেট: ৮:২৬:অপরাহ্ণ, মে ২৭, ২০২০

অ্যামাজন প্রাইমে মুক্তি পেয়েছে বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা আনুশকা শর্মা অভিনীত ওয়েব সিরিজ পাতাল লোক। এরইমধ্যে বেশ জনপ্রিয়তাও পেয়েছে সিরিজটি। পাশাপাশি ছড়িয়েছে বিতর্কও।

সিরিজ দেখে আনুশকার বিরুদ্ধে থানায় মামলা ঠুকে দিয়েছেন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতা নন্দকিশোর গুরজার। সিরিজে নন্দকিশোরের অনুমতি ছাড়াই তার ছবি ব্যবহার করা হয়েছে, যা দেখে ভীষণ চটেছেন তিনি।

বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে আনুশকার নামে মামলা তো ঠুকেছেনই, সঙ্গে তার স্বামী ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে পরামর্শ দিয়েছেন যেন তালাক দেন আনুশকাকে!

এছাড়াও এই ওয়েব সিরিজে সনাতন ধর্ম ও একাধিক হিন্দু সংগঠনকে নেতিবাচকভাবে দেখানো হয়েছে। যা সম্পূর্ণরূপে দেশবিরোধী, বলে দাবি করেছেন তিনি।

যে অভিযোগের ভিত্তিতে ‘পাতাললোক’ নিষিদ্ধ করার দাবি তুলে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের কাছেও আবেদন জানিয়ে ছিলেন এই বিজেপি নেতা।

নন্দকিশোরের বক্তব্য, বিরাট দেশের জন্য খেলে দেশের নাম উজ্জ্বল করেছেন। দেশের থেকে বড় কেউ নন! আনুশকা যা করেছেন, তার জন্যে এই মুহূর্তে বিরাটের উচিত ওকে ডিভোর্স দেওয়া।

রাষ্ট্রদোহীর মতো কাজ করেছেন আনুশকা। নন্দকিশোর গুরজারের মতে, ‘পাতাল লোক’ পাঞ্জাবের জাট, ব্রাহ্মণ ও ত্যাগিদের মধ্যে বৈষম্য তৈরি করার চেষ্টা করেছে। এমনকী এখানে প্রচুর এমন অশালীন শব্দও ব্যবহার করা হয়েছে, যা মানুষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি করবে।

নন্দকিশোরের অভিযোগের তালিকা অবশ্য এখানেই শেষ নয়! তিনি দাবি করেছেন, ‘পাতাল লোক’ সিরিজটি ভারতীয় জনতা পার্টির ভাবমূর্তিকে কলুষিত করার চেষ্টা করেছে। পাকিস্তানকে সন্ত্রাস মুক্ত রাষ্ট্র হিসেবে দর্শিয়ে বিশ্বের চোখে ভারতকে অপমান করেছে।

আর যাবতীয় এসব অভিযোগের ভিত্তিতেই প্রযোজক তথা অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার বিরুদ্ধে জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় অভিযোগ দায়ের করেছেন উত্তরপ্রদেশের লোনির এই বিজেপি বিধায়ক। তবে এবার বিরাট কোহলিকে আর্জি জানিয়েছেন আনুশকাকে ডির্ভোস দেওয়ার জন্য।

মুক্তির পর থেকে ক্রমাগত দর্শক ও সমালোচকদের প্রশংসা কুড়োচ্ছে ‘পাতাল লোক’। কিন্তু স্বস্তি নেই প্রযোজক আনুশকা শর্মার।

কিছুদিন আগে অশ্লীলতার দায়ে ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে জমা পড়েছিল পিটিশন। এবার তো বিরাট কোহলির নামও জুড়ল ‘পাতাল লোক’ বিতর্কে।