খালেদার মুক্তি হয় আদালত, না হয় রাষ্ট্রপতির ক্ষমা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:১০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮ | আপডেট: ১১:১০:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি পেতে হলে হয় কোর্ট থেকে, না হয় রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়াকে আমি গ্রেফতার করিনি, রাজনৈতিকভাবে তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। সে গ্রেফতার হয়েছে এতিমের টাকা চুরি করে। কেস তো আরও আছে। তাদের আমলে আন্তর্জাতিকভাবে এমন অনেক ঘটনা আছে।

তিনি বলেন, মিডিয়া তাদের (বিএনপি) ফেবার করে, আমি তো থাকি আপনাদের হয় ৩ নম্বর, ৪ নম্বর না হয় ৫ নম্বরে। বিএনপি পার্লামেন্টেও নাই। আমাদের এখানে, আমাদের মিডিয়ার কাছে বিএনপিই ফেবার পাচ্ছে। এটা হলো বাস্তবতা।

শেখ হাসিনা বলেন, তারা (বিএনপি) যেটা চাচ্ছে, খালেদা জিয়ার মুক্তি- এটা তো কোর্টের মাধ্যমে আনতে হবে। আর দ্রুত চাইলে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইবে। এটাই আমাদের সিস্টেম। এই মামলায় আমাদের ওপর দোষ দিয়ে তো কোনো লাভ নেই।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির এত নামি-দামি ব্যারিস্টার, তারা কেন পারলো না যে খালেদা জিয়া নির্দোষ। এখানে আমাদের কী দোষ? এখন বলছে নির্বাচন করবে না। নির্বাচন করবে কি করবে না, এটা একটা দলের বিষয়। এখানে কাউকে দাওয়াত দেয়া না দেয়া আমাদের বিষয় না।

সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একটা সরকার থেকে আরেকটা সরকারে যেতে যেন কোনো ফাঁক-ফোকর না থাকে। মধ্যবর্তী নির্বাচন দিতে গেলে সংসদ ভেঙে দিতে হয়। সংসদ কিন্তু কখনো শেষ হয়ে যায়নি। যদি কোনো ইমার্জেন্সি দেখা দেয়, যদি কোনো যুদ্ধ দেখা দেয় তখন ওই পার্লামেন্টের অনুমোদন নিয়েই যুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে হবে।