গভীর রাতে রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে গেল ছেলে-পুত্রবধূ, মারা গেলেন মা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:৩০ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৮ | আপডেট: ২:৩০:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৮

গত ৩১ অক্টোবর গভীর রাতে ছেলে ও পুত্রবধূর রাস্তায় ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা মা জোবেদা খাতুন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মারা গেলেন। সোমবার রাত সোয়া ৮টার দিকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. ফরিদ উদ্দিন মিয়া তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার সকাল ৯টায় শাহমাদার দরগা শরিফ কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গত ৩১ অক্টোবর গভীর রাতে মাদারীপুর শকুনী লেক পাড়ের রাস্তায় বৃদ্ধা জোবেদা খাতুনকে ফেলে যায় তার কুলাংগার সন্তান ও পুত্রবধূ।

পরদিন (১ নভেম্বর) বিলাস হালদার ও মেহেদী হাসান নামে দুই শিক্ষার্থী সকালে হাঁটতে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে। পরে তারা ওই বৃদ্ধাকে ভর্তি করান মাদারীপুর সদর হাসপাতালে। প্রথম দিন নিজের নাম আর সন্তান-বউ মিলে রাস্তায় ফেলে যাওয়ার কথাটুকু বলতে পারলেও তারপর থেকে আর কথা বলতে পারেননি এই বৃদ্ধা।

গত ১১ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার রাতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। রাত সোয়া ৮টার দিকে তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর ঘটনার দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে সিভিল সার্জন, সমাজসেবা কর্মকর্তা ও মাদারীপুর পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ছুটে যান হাসপাতালে। পরে প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মঙ্গলবার সকাল ৯টায় শাহমাদার দরগা কবরস্থানে জোবেদা খাতুনকে দাফন করা হয়।

মাদারীপুর সিভিল সার্জন ডা. ফরিদ উদ্দিন মিয়া বলেন, গত ১১ দিন মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। গত রাতে তিনি মারা যান। তাকে দাফন করা হয়েছে।