গাড়ির চাকা ফাটলে, ফটকা ফুটলেও বলবে আইএস: তথ্যমন্ত্রী

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:১১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯ | আপডেট: ৫:১১:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ফাইল ছবি

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, দেশে কোনো সময় একটি গাড়ির চাকা ফাটলে সেটাও আইএস করেছে বলবে। আমার সন্দেহ হচ্ছে…। বাংলাদেশে একটি পটকা ফুটলে বা একটি বোমা ফুটলে সেটাই আইএস!

শনিবার রাতে রাজধানীর সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড়ে পুলিশের ওপর ‘বোমা’ হামলার বিষয়ে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে রোববার তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, আমরা জঙ্গি অবদমন করতে পেরেছি, কিন্তু জঙ্গি পুরোপুরি নির্মূল হয়নি। অগাস্ট মাসের শেষ দিনে জঙ্গিরা একটি বোমা ফুটিয়ে জানান দেওয়ার চেষ্টা করেছে যে তারা এখনো নির্মূল হয়নি। আমরা জাতিকে সাথে নিয়ে তাদের নির্মূল করার জন্য বদ্ধপরিকর।

বিএনপিসহ কিছু দল ‘জঙ্গিদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিচ্ছে’ অভিযোগ করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান বলেন, তাদের প্রতি অনুরোধ, আশ্রয় প্রশ্রয় দেওয়ার যে রাজনীতি করেন, তা থেকে বেরিয়ে আসেন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিএনপির ৪১ বছরের ইতিহাসে তারা ক্ষমতা দখল করেছিল, ক্ষমতায় গিয়েছিল খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে কিন্তু দেশকে তারা সুশাসন দিতে পারেনি। বেগম খালেদা জিয়া যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন দুর্নীতি-দুঃশাসন শুধু নয়, দেশ জঙ্গিদের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছিল।

আর গত সাড়ে ১০ বছরে বিএনপি বিরোধী দল হিসেবে যে রাজনীতি করেছে, সেটাও ‘সন্ত্রাস আশ্রয়ী, জঙ্গি নির্ভর রাজনীতি’ বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ নেতা হাছান মাহমুদ।

সড়ক দুর্ঘটনায় বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তা কৃষ্ণা রায় চৌধুরীর পা হারানোর ঘটনা নিয়ে এক প্রশ্নে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আসলে বাংলাদেশে কিছু চালক, আমি সব চালককে বলব না, যেভাবে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে, এটি উদ্বেগজনক পর্যায়ে পৌঁছেছে। আমি মনে করি সবারই সচেতন হওয়া প্রয়োজন।

চালক ছাড়া অন্য কাউকে স্টিয়ারিংয়ে বসার সুযোগ যেন না দেওয়া হয়, সেজন্য বাস-ট্রাক মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতি অনুরোধ রাখেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, গত কিছু দিনের মধ্যে যেসব দুর্ঘটনা হয়েছে, সেখানে অনেক ক্ষেত্রে ড্রাইভার নয়, হেলপার গাড়ি চালাচ্ছে।

কৃষ্ণা রায়ের পা হারানোর ঘটনাকে ‘অত্যন্ত দুঃখজনক’ হিসেবে বর্ণনা করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, যাদের কারণে হয়েছে, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া প্রয়োজন। সরকারও সে লক্ষ্যে কাজ করছে।