গোলাপগঞ্জে গত বছরের তুলনায় পাশের হার ও জিপিএ-৫ বেড়েছে

প্রাথমিকে পাশের হার ৯৭.৭৯ ও ইবতেদায়ীতে ৯৯.৩১শতাংশ

প্রকাশিত: ৭:৩৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৩৮:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮
ফাইল ছবি

গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি: গোলাপগঞ্জ উপজেলা অডিটোরিয়ামে গতকাল রোববার দুপুর ২টায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো: আব্দুল হামিদ সরকারের সভাপতিত্বে ও সহকারি উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ লুৎফুর রহমানের পরিচালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নিবার্হী অফিসার মো: মামুনুর রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারি উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ পারভেজ তালুকদার, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার খায়রুজ্জামান।

এবারে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ১৮০টি সরকারি ও ৬৭টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোট ৭২৭৭জন শিক্ষার্থী ডি আর ভুক্ত ছিল। এর মধ্যে ৭হাজার ১০০জন শিক্ষার্থীর এবারের পিইএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ৬হাজার ৯২৯জন পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে। আর ফেল করেছে ১৭১জন। মোট অনুপস্থিত ১৭৭জন। পাশের হার ৯৭.৭৯শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭০৫জন। এ পেয়েছে ১হজার ২৫১, এ মাইনাস পেয়েছে ১হাজার ৪১জন, বি পেয়েছে ১হাজার ৫৪জন, সি পেয়েছে ১হাজার ৮২০জন, ডি পেয়েছে ১হাজার ৫৮জন শিক্ষার্থী।

এদিকে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ৩২টি মাদ্রসার মোট ৬৪৮জন শিক্ষার্থী ডি আর ভুক্ত ছিল। এর মধ্যে ৫৮৩জন শিক্ষার্থী  ইবতেদায়ী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে উত্তীর্ণ হয়েছে। আর  ফেল করেছে ৪জন। পাশের হার ৯৯.৩১শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৯জন। এ পেয়েছে ৯৮জন, এ মাইনাস পেয়েছে ১২৯জন, বি পেয়েছে ১২৮জন, সি পেয়েছে ১৬৬জন, ডি পেয়েছে ২৯জন শিক্ষার্থী।

এব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো: আব্দুল হামিদ সরকার জানান গতবারের চেয়ে এবার পাশের হার ও জিপিএ- ৫ বেড়েছে।