ঘোর সঙ্কটে ইথিওপিয়া, অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহবান জাতিসংঘের

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:১৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০২০ | আপডেট: ৯:১৭:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০২০

সংঘাতের কবলে পড়া বেসামরিক মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছাতে ইথিওপিয়ায় অবিলম্বে সাময়িক যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় টাইগ্রে এলাকায় দুই সপ্তাহ ধরে চলা এই সংঘাতে আক্রান্তদের কাছে ত্রাণ পৌঁছাতে জাতিসংঘ একটি মানবিক করিডোর স্থাপন করতে চায়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ইথিওপিয়ার সরকার এবং টাইগ্রয় অঞ্চলের রাজনৈতিক দলের প্রতি অনুগত গোষ্ঠির মধ্যকার দুই সপ্তাহের যুদ্ধে বহু লোক হতাহত হয়েছেন। অন্তত ৩৩ হাজার লোক সুদানে চলে গেছেন।

জাতিসংঘের অভিবাসী সংস্থা বলেছে তারা মনে করছে, যদি এই যুদ্ধাবস্থা চলতে থাকে, তাহলে অন্তত দুই লাখ লোক আগামী ছয় মাসের মধ্যে দেশ ছাড়তে পারে।

ইথিওপিয়া সরকার এই বিষয়ে সংলাপেও অস্বীকৃতি জানিয়েছে। তারা বলছে, চলমান পরিস্থিতি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দায়িত্ব এবং এটি অভ্যন্তরীণ বিষয়।

এই সংঘাতের শুরুটা হয়েছে দীর্ঘদিন আগে। ক্ষমতাবান গোষ্ঠি টাইগ্রয় পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট ও ইথিওপিয়ার কেন্দ্রীয় সরকারের এই সংঘাত কিভাবে শেষ হবে, তা নিয়ে দেখা দিয়েছে নানা রকম সংশয়।

করোনাভাইরাসের কারণে গত জুনে ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী অবি আহমেদ নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়ার পর সংঘাত পরিস্থিতি খারাপ আকার ধারণ করে। পিপলস লিবারেশন গ্রুপ বলছে, বর্তমান ইথিওপিয়া সরকার অবৈধ এবং তাদের দেশ পরিচালনার বৈধতা নেই।