চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই দিনে ৩ ব্যবসায়ীর মৃত্যু

সফিউল আলম সফিউল আলম

কক্সবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৪:৫৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০২০ | আপডেট: ৪:৫৪:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০২০
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া এলাকায় সড়ক দুির্ঘটনায় থামছেনা মৃত্যুর মিছিল। বেপরোয়া গতির যান চলাচলের কারণে একের পর এক খালি হচ্ছে মায়ের কোল। গত দু’দিনে তিনজন মটরসাইকেল আরোহী তরুণ প্রাইভেট গাড়ির ধাক্কায় মারা গেছেন। গুরুতর আহত হয়েছেন একজনের স্ত্রী ও অপর এক তরুণ। গত বুধবার সকাল ১০টার দিকে মহাসড়কের চকরিয়ার ইসলামনগর এলাকায় প্রাইভেট কারের ধাক্কায় মারাগেছেন মোটরসাইকেল আরোহী মো.হেলাল উদ্দিন (৩০) নামের এক তরুণ। মো.হেলাল উদ্দিন লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের খন্দকার পাড়ার মোক্তার আহমদের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী লোকজন জানায়, এদিন সকালে দুবাই প্রবাসী হেলাল উদ্দিন অপর এক বন্ধুকে নিয়ে কক্সবাজারে বেড়াতে যাওয়ার জন্য রওনা দেয়। চকরিয়ার ইসলামনগর এলাকায় পৌছলে মহাসড়কে নিষিদ্ধ যান ব্যাটারি চালিত একটি অটোরিক্সা যাত্রী নামিয়ে দিয়ে ঘুরে সড়কের মাঝখানে চলে আসে। এসময় মোটর সাইকেল আরোহী নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের মাঝে পড়ে যায়। পরে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রæতগামী প্রাইভেট কার মোটর সাইকেল আরোহীকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে সে মারা যায়। এসময় তার সাথে থাকা অপর আরোহী বন্ধু আহত হয়।

চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির আইসি আনিসুর রহমান বলেন, প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। কারের চালক পালিয়ে যাওয়া তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি। নিহতের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এঘটনা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এর আগে গত ১০ আগষ্ট সোমবার বিকেলে বানিয়াছড়া এলাকায় ট্রাকের নিচে পিষ্ট হয়ে মারা যায় চকরিয়া পৌরসভার থানা সেন্টার এলাকার ব্যবসায়ী মন্টু। এরআগের দিন ৯ আগষ্ট সন্ধ্যায় মহাসড়কের আজিজ নগর স্টেশনে নোয়া গাড়ির ধাক্কায় মারা যান পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের পকপুকুরিয়া এলাকার হেলাল উদ্দিন নামের আরও এক তরুণ ব্যবসায়ী। গুরুত্ব আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন সাথে থাকা তার স্ত্রী।