চট্টগ্রামে ট্রেনের টিকেট বিক্রির প্রথম দিনেই সার্ভার বিকল

এস. এম. আকাশ এস. এম. আকাশ

ব্যুরো চিফ,চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ৬:৩৪ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৩৪:অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

ঈদে ঘরমুখো মানুষের জন্য বুধবার (২২ মে) থেকে চট্টগ্রামে শুরু হয়েছে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি। চট্টগ্রাম রেল স্টেশনে সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়েছে প্রথম দিনের ট্রেনের টিকেট বিক্রি। প্রত্যাশিত টিকেটের আশায় কেউ রাত থেকে আবার কেউ সেহেরির পর থেকে টিকেটের জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। সকালে টিকেট বিক্রি শুরু হওয়ার পরপরই সমস্যা দেখা দিয়েছে ট্রেনের টিকেট বিক্রির সার্ভারে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চট্টগ্রাম রেল স্টেশনে নাড়ির টানে পরিবারের সবার সঙ্গে ঈদ উদযাপনের জন্য টিকিট প্রত্যাশীদের ভিড় জমেছে। কিন্তু টিকিট সংগ্রহ করতে বিক্রির প্রথম দিনেই ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে যাত্রীদের। রেল স্টেশনে টিকেট নিতে আসা যাত্রীদের প্রচণ্ড ভিড লক্ষ্য করা গেছে। এতো ভিড়ের মধ্যে সার্ভারের সমস্যার কারণে প্রথম ১১ মিনিটে যেখানে শতাধিক টিকেট বিক্রি হওয়ার কথা সেখানে বিক্রি হয়েছে মাত্র ৪-৬টি টিকেট।প্রথম দিনে এভাবে সার্ভার বিকল বা সমস্যা দেখা দেওয়ার কারণে কাউন্টারের সামনে অপেক্ষায় থাকা টিকেট প্রত্যাশীরা হৈ-হুল্লর শুরু করে।

টিকেট প্রত্যাশীরা বলেন, সকাল ৯টা থেকে টিকেট বিক্রি শুরু হওয়ার কথা এবং তা ঠিক সময়েই হয়েছিল। কিন্তু বিক্রি শুরুর সঙ্গে সঙ্গে দেখা দেয় সার্ভার বিভ্রাট। একটি টিকেট কনর্ফাম করতে অনেক সময় নিচ্ছে। এভাবেই যদি সার্ভার সমস্যা করে তাহলে মনে হয় না টিকেট প্রত্যাশীরা সঠিক সময়ে টিকেট পাবে না ।

টিকেট প্রত্যাশীরা আরও বলেন, দূর পাল্লার জন্য ট্রেন সফর নিরাপদ। এতে কোনো সমস্যা থাকে না, যাতায়াতেও কষ্ট কম হয়। তাই কষ্ট করে হলেও ট্রেনের টিকেটের জন্য লাইনে দাঁড়িয়েছি। কিন্তু প্রথম শুরুতেই যেভাবে সার্ভারের সমস্যা করেছে। তাতে মনে হয় না টিক সময়ে বাসায় পৌঁছাতে পারবো।

এ বিষয়ে জানতে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক সৈয়দ ফারুক দি বাংলাদেশ টুডে কে বলেন, কাউন্টারে টিকেট বিক্রির পাশাপাশি আমরা রেলওয়ের অ্যাপসেও টিকেট বিক্রি করছি। যার ৫০ শতাংশ রেলওয়ের অ্যাপসে এবং বাকী ৫০ শতাংশ স্টেশন কাউন্টারে।

সার্ভারের সমস্যার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রথম শুরুতেই সার্ভারে একটু সমস্যা দেখা দিয়েছিল। আমরা এ বিষয়গুলো দেখছি। আর আমাদের এ সার্ভার এবং রেলওয়ের অ্যাপস পুরোটা তদারকি করছেন ‘সিএনএস’।

তিনি আরও বলেন, একসাথে অনকে টিকেট একসাথে কনর্ফাম করা হচ্ছে। তাই প্রথম প্রথম একটু সমস্যা হচ্ছে। পরে সব ঠিক হয়ে যাবে।