চলচ্চিত্রে ক্যারিয়ার গড়বেন সালাহ!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:০৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০১৮ | আপডেট: ২:০৫:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০১৮

মোহাম্মদ সালাহ একজন মিসরীয় ফুটবলার। তিনি ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলের হয়ে খেলে থাকেন। গেল কয়েকবছর ধরে জাদুকরী পারফরম করছেন। এসময়ে তাকে নিয়ে পাতার পর পাতা লিখেছেন সাংবাদিকরা। তবে তার অনেক বিষয় রয়েছে যা ফুটবলপ্রেমীদের কাছে এখনো অজানা।

১. প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে ফুটবলে মনোযোগ: ২০১৪ সালে মিসরের সেনাবাহিনীতে যোগ দেন সালাহ। পুরোপুরি দেশের সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করেন। ইতিমধ্যে তার ফুটবলীয় দক্ষতা সম্পর্কে অভিহিত হন দেশটির প্রধানমন্ত্রী। পরে জাতীয় দায়িত্ব ছেড়ে তাকে ফুটবলে মনোযোগ দিতে বলেন তিনি। এর পরের গল্পটা সবার জানা।

২. দয়ার সাগর: সালাহ মানুষ হিসেবে ভীষণ দয়ালু ও উদার প্রকৃতির। দুঃস্থ, অসহায়, গরিবদের সাহায্য-সহযোগিতা করতে দু’হাত বাড়িয়ে দেন। অভাবী, বিকলাঙ্গ শিশুদের পরম মমতায় বুকে জড়িয়ে নেন।

নিজ শহর নাগরিগে দারিদ্র্য নিরসন ও শিক্ষার প্রসারে কাজ করেন। দাতব্য প্রতিষ্ঠানে অর্থ দান করেন। তার দেয়া অর্থে বহু স্কুল, কলেজ গড়ে উঠেছে। পাশাপাশি শহরটির হাসপাতালে সব আপডেট চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ করেন।

৩. সালাহ ও চোর: একবার এক চোর সালাহর বাড়ি থেকে অনেক কিছু চুরি করে নিয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত সে ধরা পড়ে। তাকে পুলিশে দিতে উদগ্রীব হয়ে উঠেন তার বাবা। তবে তা হতে দেননি তিনি। সেই চোরের সঙ্গে নিজে সাক্ষাৎ করেন এবং টাকা দিয়ে আসেন। তাকে চাকরি পেতেও সহায়তা করেন।

৪. চলচ্চিত্রে ক্যারিয়ার গড়বেন সালাহ: সিনেমা দেখতে প্রচুর পছন্দ করেন সালাহ। তিনি হলিউড অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিয় এবং মিসরীয় অভিনেতা খালেদ আল নাবীর পাঁড় ভক্ত। সম্ভবত, ফুটবল থেকে অবসরের পর চলচ্চিত্রে ক্যারিয়ার শুরু করবেন তিনি।

৫. প্রচুর খান: সালাহ ভীষণ ভোজনরসিক। খেতে খুব পছন্দ করেন। তার প্রিয় খাবার কুশারি (মিসরীয় একধরনের সুস্বাদু খাবার)। এছাড়া সবধরনের খাবার খান তিনি। বাদ যায় না চর্বিজাতীয় খাবারও।