চাঁদা না দেয়ায় ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় থানা ঘেরাও যশোরে

শহিদ জয় শহিদ জয়

যশোর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:২১ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৯ | আপডেট: ১০:২১:অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

চাঁদার টাকার না দেয়ায় সাবেক ফুটবলার ও ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। যশোরে ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ করে কোতয়ালি মডেল থানা ঘেরাও করেছে।

এসময় ব্যবসায়ী সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছে। আহত ব্যবসায়ী বড় বাজার এলাকার মৃত আবু কাশেমের ছেলে এবং বড়বাজার কর্ণফুলি ফিসের মালিক মাহাফুজুর রহমান নিপু বর্তমানে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে বড়বাজারের আবু কালামের ছেলে হৃদয়, ঝুমঝুমপুর এলাকার হৃদয় এবং শিমুল নামে তিনজন নিপুর কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা না দিলে তারা ছুরিকাঘাত করে।

স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা মাহাফুজুর রহমান নিপুকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। এদিকে ব্যবসায়ী নিপুকে ছুরিকাঘাত করায় বড়বাজার ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থলে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মৎস সমিতির সভাপতি হাফিজুর রহমান লাবু, যশোর পৌরসভার কাউন্সিলার শেখ আব্বাস রাজ, মনসা বস্ত্রালয়ের মালিক তন্ময় সাহা, স্বর্ণলতা জুয়েলার্সের মালিক মীর মোশারফ হোসেন বাবু, শেখ কুরবান আরী, আবুল বাশার,আক্তারুজ্জামান, আজাদ হোসেনসহ অর্ধশতাধিক ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। এসময় তারা দুর্বৃত্বদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলন শেষে যশোর ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ও দোকানমালিকরা যশোর কোতয়ালি মডেল থানা ঘেরাও করে।

যশোর কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (পুলিশ পরিদর্শক) সমীর কুমার বিশ্বাস দুর্বৃত্বদের আটকের আশ্বাস দিলে তারা চলে যায়।এ ব্যাপারে কাউন্সিলার শেখ আব্বাস রাজ জানান, যশোর সকল ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। ২/৩জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছে।

যশোর কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (পুলিশ পরিদর্শক) সমীর কুমার বিশ্বাস জানান, ছুরিকাঘাতের ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দিচ্ছে। পুলিশ দুর্বৃত্বদের আটকের জন্য অভিযান শুরু করেছে।