চারশ’ ডলারে শরনার্থী বেঁচাকেনা!

প্রকাশিত: ৮:৩৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৩৬:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৮

লিবিয়ায় মাত্র ৩০ হাজার টাকায় (চারশ’ ডলার) মানুষ বিকিকিনি হচ্ছে। উন্নত জীবনের মোহে আফ্রিকা থেকে ইউরোপের পথে পাড়ি জমাতে গিয়ে অপরহরনের শিকার হওয়া শরণার্থীরা এই পন্য হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছেন। তাদের বিক্রি করে অপহরণকারীরা আয় করছে হাজার হাজার ডলার।

রোববার কাতারভিত্তিক বার্তাসংস্থা আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, সুদান, ইরিত্রিয়া, ইথিওপিয়ার লোকজন প্রথমে লিবিয়ায় এসে জড়ো হয়। সেখান থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ছড়িয়ে পড়ে ইউরোপে। যারা ধরা পরে দালালরা তাদের বিক্রি করে দেয়। সেখানে ধরা পরা শরনার্থীদের ধর্ষণ-মারধরসহ পাশবিক নির্যাতনও করা হয়ে থাকে।

প্রতিবেদন বলছে,আন্তর্জাতিক অভিবাসী সংস্থার মতে বর্তমানে লিবিয়াতে প্রায় ৭০ লাখেরও বেশি অভিবাসী অবস্থান করছে। আফ্রিকা থেকে ইউরোপে যাওয়ার পথে বাঁকে বাঁকে ফাঁদ পেতে বসে থাকে মানব পাচারকারী চক্রের দালালরা।

তাদের কাছেই একেবারে পানির দরে শরণার্থীদের বেঁচে দেয় দালালরা। সবচেয়ে বড় চক্র হচ্ছে লিবিয়ায়। যেখানে ওঁৎ পেতে রয়েছে অপহরণ চক্রের মতো ভয়াবহ গোষ্ঠী। এই অপহরণ চক্রের কাজ হচ্ছে শরণার্থীদের জিম্মি করা কিংবা অন্য কোনো অপরাধ চক্রের কাছে আটককৃতদের দিগুণ দামে বিক্রি করে দেয়া।

ত্রিপোলির ‘বড় হাটে’ সর্বনিন্ম চারশ’ ডলারেও বিক্রি করা হয় তাদের।