চার বছর বিয়ে, নিয়মিত সহবাস, তবুও ‘ভার্জিন’ তরুণী! হতবাক চিকিৎসক

চিকিৎসক পর্যবেক্ষণের পরে বুঝতে পারেন, বিয়ের চার বছর পরেও তিনি ‘ভার্জিন’।

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৩৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৩৯:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০১৮

বিয়ের চার বছর পূর্ণ হওয়ার পরেও গর্ভধারণ করতে পারছিলেন বছর চব্বিশের তরুণী। বছর দুয়েকের বড় স্বামীর সঙ্গে চিকিৎসকের কাছে এসেছিলেন পরামর্শের জন্য।

এই পর্যন্ত ঘটনাটি গোটা বিশ্বের সেই সব দম্পতির সমস্যার সঙ্গে মিলে যায়, যাঁরা চেষ্টা করেও সন্তানের জন্ম দিতে পারছেন না। কিন্তু এই দম্পতির ঘটনাটি একটু আলাদা। চিকিৎসকরা পরীক্ষা করতে গিয়ে অবাক হয়ে গিয়েছেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘দ্য সান’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, চিনের পশ্চিম গুয়াংঝাউ প্রদেশের এক আশ্চর্য ঘটনার কথা। চার বছর নিয়মিত যৌনতার পরেও কেন সন্তান আসছে না, সে ব্যাপারে খুঁটিয়ে পরীক্ষা করতে গিয়ে চিকিৎসক দেখেন প্রতিবার সঙ্গমের সময়ই অস্বাভাবিক যন্ত্রণায় কুঁকড়ে যেতেন ওই মহিলা। মহিলার ধারণা হয়েছিল, তাঁরই কোনও শারীরিক সমস্যার কারণে ওইরকম ব্যথা হচ্ছে। কিন্তু ধীরে ধীরে চিকিৎসকদের কাছে স্পষ্ট হয় আসল ব্যাপারটা।

চিকিৎসকরা পর্যবেক্ষণের পরে বুঝতে পারেন, ওই দম্পতি কেবল পায়ুছিদ্রেই সঙ্গম করেছেন। এবং সেই কারণেই ওই মহিলার যোনির সতীচ্ছদ এখনও অক্ষতই। তাই বিয়ের চার বছর পরেও তিনি ‘ভার্জিন’।

প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, যে চিকিৎসকের কাছে তাঁরা গিয়েছিলেন, তিনি সবিস্ময়ে জানিয়েছেন, ‘‘চার বছর হয়ে গিয়েছে বিয়ের। অথচ স্বামী-স্ত্রীর কেউই জানতেন কীভাবে গর্ভ নিষিক্ত করতে হয়।’’

এর পর ওই চিকিৎসক ভাল করে তাঁদের বুঝিয়ে দেন গর্ভধারণ করতে গেলে কী কী করতে হবে। এর পরই আসে সুখবর। ওই মহিলা এখন গর্ভবতী। চিকিৎসককে উপহার দিয়েছেন ১০০টি ডিম ও একটি মুরগি।